• বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভারতীয় সাবমেরিনের অনুপ্রবেশ ঠেকিয়ে দিল পাকিস্তান

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২০ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৪৬
ভারতীয় সাবমেরিনের অনুপ্রবেশ ঠেকিয়ে দিল পাকিস্তান
পাকিস্তানি জলসীমায় শনাক্ত হওয়া ভারতীয় সাবমেরিন (ছবি : দ্য ডন)

দক্ষিণ এশিয়ার ক্ষমতাধর দেশ ভারতের একটি সাবমেরিন শনাক্তের পর সেটিকে প্রতিরোধের দাবি করেছে প্রতিবেশী রাষ্ট্র পাকিস্তানের সেনাবাহিনী। চলতি সপ্তাহের শুরুতে অবৈধভাবে পাক জলসীমায় প্রবেশ করে সাবমেরিনটি। ২০১৬ সালের পর থেকে এ পর্যন্ত দেশটির জলসীমায় ভারতীয় সাবমেরিন অনুপ্রবেশের তৃতীয় ঘটনা এটি।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার প্রতিবেদনে জানানো হয়, গত শনিবার দিবাগত রাতে ভারতীয় সাবমেরিনটি পাক জলসীমায় অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালায় বলে মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) পাকিস্তানি সেনাবাহিনী বিবৃতির মাধ্যমে জানায়।

প্রথমে সাবমেরিনটিকে শনাক্ত ও ট্রাক করা হয়। সামুদ্রিক টহল বিমানের মাধ্যমে পাক নৌবাহিনী এলাকাটিতে নিয়মিত নজরদারি চালাচ্ছিল।

এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে নয়াদিল্লি সরকারের তরফ থেকে এখনো কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো যায়নি।

আরও পড়ুন : মাছ নিয়ে যায় ভারত, প্রতিবাদে সরব লঙ্কান জেলেরা

দক্ষিণ এশিয়ার প্রতিবেশী এই দুই দেশের সামরিক বাহিনী ও সরকার একে অপরকে বিভিন্ন সময় নানান ইস্যুতে দোষারোপ করে আসছে। এছাড়াও একে অপরকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোকে মদদ দেওয়ার মতো গুরুতর অভিযোগও করছে দুই দেশ।

পাকিস্তানের সামরিক বাহিনী এবারের অনুপ্রবেশকে তৃতীয় ঘটনা হিসেবে উল্লেখ করেছে। কেননা এর আগে ২০১৬ এবং ২০১৯ সালেও ভারতীয় সাবমেরিন অবৈধভাবে পাক জলসীমায় প্রবেশ করেছিল বলে দাবি করা হয়।

আরও পড়ুন : বাংলাদেশের ঘটনায় পশ্চিমবঙ্গে সতর্কতা

উল্লেখ্য, পারমাণবিক শক্তিধর এই দুই দেশ ১৯৪৭ সালের পর থেকে তিনবার সরাসরি যুদ্ধে জড়িয়েছিল। যার ধারাবাহিকতায় ২০১৯ সালের পর থেকেই দেশ দুইটির মধ্যে নতুনভাবে সম্পর্ক তিক্ত হচ্ছে। বিতর্কিত কাশ্মীর উপত্যকাকে কেন্দ্র করেই বর্তমানে তাদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড