• বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কাশ্মীরে গোলাগুলিতে নিহত বেড়ে ১১

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৮ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৩৩
কাশ্মীরে গোলাগুলিতে নিহত বেড়ে ১১
কাশ্মীরিদের সঙ্গে সংঘর্ষে লিপ্ত ভারতীয় সেনারা (ছবি : কাশ্মীর টাইমস)

সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানের জেরে ক্রমে অস্থিতিশীল হয়ে ওঠা ভারত নিয়ন্ত্রিত উপত্যকা জম্মু-কাশ্মীরে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের গুলিতে আরও দুই বেসামরিক নাগরিকের প্রাণহানি ঘটেছে। রবিবার (১৭ অক্টোবর) কাশ্মীরের কুলগাঁও জেলায় গুলিতে প্রাণ হারানো ওই দুই বেসামরিক বিহারের বাসিন্দা বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এ নিয়ে চলতি মাসে ভূস্বর্গ খ্যাত উপত্যকাটিতে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের গুলিতে অন্তত ১১ বেসামরিক নাগরিকের প্রাণহানি ঘটেছে।

ভারতীয় মিডিয়া এনডিটিভি বলছে, রবিবার কাশ্মীরের কুলগাঁও জেলার ভ্যানপোহ এলাকায় দিনমজুরদের লক্ষ্য করে গুলি চালিয়েছে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা। এতে দুজন নিহত ও আরও একজন আহত হয়েছেন।

একদিন আগে এই উপত্যকায় বিচ্ছিন্নতাবাদীদের গুলিতে বিহারের একজন পানিপুরি বিক্রেতা এবং উত্তরপ্রদেশের এক রং মিস্ত্রি প্রাণ হারান। পুলিশ বলছে, শ্রীনগরের রাস্তায় পানিপুরি বিক্রেতা অরবিন্দ কুমার শাহকে বন্দুক ঠেকিয়ে গুলি চালিয়ে হত্যা করা হয়। পুলওয়ামায় গুলিতে রং মিস্ত্রি সগীর আহমদ নিহত হন।

স্থানীয় একজন কর্মকর্তা বলেন, বেসামরিক নাগরিকদের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের চালানো হামলায় এখন পর্যন্ত যে ১১ জন প্রাণ হারিয়েছেন; তাদের মধ্যে পাঁচজন অন্য রাজ্যের বাসিন্দা। এটি ইঙ্গিত দিচ্ছে, বিচ্ছিন্নতাবাদীরা কাশ্মীর থেকে অন্য রাজ্যের বাসিন্দাদের তাড়িয়ে দিতে চায়।

আরও পড়ুন : রাশিয়ায় বিষাক্ত মদপানে ১৮ জনের মৃত্যু

নিহতদের মধ্যে কাশ্মীরি পণ্ডিত সম্প্রদায়ের বিখ্যাত সদস্য মাখন লাল বিন্দ্রু-সহ শ্রীনগরের ওষুধ বিক্রেতা মোহাম্মদ শফি লোন, ট্যাক্সি চালক দ্বীপক চাঁদ, শিক্ষক সুপুন্দর কৌর ও রাস্তায় খাবার বিক্রেতা বীরেন্দ্রর পাসওয়ান রয়েছেন।

এসব হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় উপত্যকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। যে কারণে কাশ্মীরি পণ্ডিতদের পরিবারের সদস্যরা অস্থায়ী আশ্রয় শিবির ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছেন। কাশ্মীরি অভিবাসীদের জন্য দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর চালুকৃত বিশেষ প্রকল্পের আওতায় চাকরি পাওয়ার পর উপত্যকায় ফিরে আসা সরকারি কর্মচারীসহ কয়েক ডজন পরিবার ইতোমধ্যে অন্যত্র চলে গেছে।

হামলা বৃদ্ধি পাওয়ায় জম্মু এবং কাশ্মীরে ব্যাপক সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে এরই মধ্যে উপত্যকাটি থেকে প্রায় ৯০০ জনকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

আরও পড়ুন : ভারতে প্রবল বৃষ্টি-ভূমিধসে নিহত বেড়ে ২৬

পুলিশের পাশাপাশি এবার দেশটির সামরিক বাহিনীও সন্ত্রাসবিরোধী চিরুনি অভিযান জোরদার করেছে। গত এক সপ্তাহে জম্মু-কাশ্মীরে সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে অন্তত ১৩ জন বিচ্ছিন্নতাবাদী নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের মহাপরিদর্শক বিজয় কুমার বলেছেন, বেসামরিক হত্যাকাণ্ডের পর ৯টি বন্দুক যুদ্ধের ঘটনায় ১৩ জন সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। আমরা গত ২৪ ঘণ্টারও কম সময়ের মধ্যে শ্রীনগরে তিন সন্ত্রাসীকে হত্যা করেছি।

আরও পড়ুন : মেলবোর্নে শেষ হচ্ছে ২৬২ দিনের লকডাউন

এর আগে, শনিবার ভারতীয় সামরিক বাহিনী জানায়, জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চ জেলায় ৪৮ ঘণ্টার সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে সেনাবাহিনীর অন্তত ৯ সদস্যের প্রাণহানি ঘটেছে।

সূত্র : এনডিটিভি

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড