• বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মাছ নিয়ে যায় ভারত, প্রতিবাদে সরব লঙ্কান জেলেরা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৮ অক্টোবর ২০২১, ১২:৫২
মাছ নিয়ে যায় ভারত, প্রতিবাদে সরব লঙ্কান জেলেরা
সমুদ্র থেকে মাছ ধরে ফিরছেন জেলেরা (ছবি : কলম্বো টাইমস)

অবৈধভাবে দক্ষিণ এশিয়ার দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলঙ্কার জলসীমায় অনুপ্রবেশের মাধ্যমে মাছ ধরে নিয়ে যাচ্ছে ভারতীয় জেলেরা। এমনই অভিযোগ বহু বছর ধরে করে আসছেন লঙ্কান জেলেরা। ভারতীয়দের ঠেকাতে সরকার কোনোদিনই পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেয়নি বলেও অভিযোগ তাদের। রবিবার (১৭ অক্টোবর) সম্মিলিতভাবে এসব ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন দ্বীপরাষ্ট্রটির জেলে ও বিরোধী দলীয় নেতারা।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার প্রতিবেদন অনুযায়ী, রবিবার কালো পতাকা উড়িয়ে শ্রীলঙ্কার উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় শহর মুলাইত্তিভু থেকে দেশটির সর্ব উত্তরের প্রান্ত পয়েন্ট পেদ্রো পর্যন্ত প্রায় ১০০ কিলোমিটার পাড়ি দেয় লঙ্কান জেলেদের বিশাল নৌবহর। এ সময় বিরোধী দলীয় নেতারাও তাদের সঙ্গে ছিলেন।

তামিল বিরোধী দল তামিল ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স (টিএনএ) সদস্য এম এ সুমানথিরান পয়েন্ট পেদ্রোতে সাংবাদিকদের বলেন, আমরা সমুদের তলদেশ থেকে ভারতীয় জেলেদের অবৈধভাবে মাছ ধরে নিয়ে যাওয়ার প্রতিবাদ করতে এসেছি।

বিশ্লেষকদের মতে, শ্রীলঙ্কায় বটম ট্রলিং বা সমুদ্রের তলদেশ থেকে মাছ ধরা ২০১৭ সাল থেকে নিষিদ্ধ রয়েছে। মূলত বটম ট্রলিংয়ে সামুদ্রিক বাস্তুতন্ত্রের মারাত্মক ক্ষতি হয় বলে জানা যায়।

আরও পড়ুন : উত্তেজনা বাড়িয়ে লাদাখের আকাশে চীনা ফাইটার জেটের মহড়া

টিএনএ জানিয়েছে, তারা ভারতীয় জেলেদের অনধিকার প্রবেশ রোধ এবং দরিদ্র লঙ্কান মৎস্যজীবী সম্প্রদায়কে রক্ষায় শ্রীলঙ্কা কর্তৃপক্ষের ব্যর্থতার প্রতিবাদ জানাচ্ছে।

বিষয়টি নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে লঙ্কান সরকারের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

কলম্বো থেকে আল-জাজিরার সংবাদদাতা মিনেলে ফার্নান্দেজ জানিয়েছেন, ভারতীয় জেলেদের অনুপ্রবেশ নিয়ে বহু বছর যাবতই শ্রীলঙ্কার মৎস্যজীবীরা অভিযোগ করে আসছেন। তিনি বলেছেন, এর মূল কারণ জীবিকা। শ্রীলঙ্কার জেলেরা চাহিদা মেটাতে হিমশিম খাওয়া এবং তাদের ভাষ্যমতে লঙ্কান জলসীমায় ঢুকে ভারতীয়দের ব্যাপক হারে মূল্যবান মাছ ধরে নিয়ে যাওয়ার বিষয় এটি।

আরও পড়ুন : ম্যার্কেলের প্রশংসায় পঞ্চমুখ এরদোগান

ফার্নান্দেজ আরও জানান, ২০১৭ সালের আইন আরও শক্তভাবে প্রয়োগ এবং দোষীদের বিচারের আওতায় আনার দাবিতেই রবিবার লঙ্কান জেলেরা নৌবহর নিয়ে বেরিয়েছিলেন।

দুই প্রতিবেশীর মধ্যে উত্তেজনা

পুরোপুরি সরু পক প্রণালী দিয়ে বিভক্ত ভারত ও শ্রীলঙ্কা। সামুদ্রিক এই অঞ্চলটিতে বিপুল পরিমাণে চিংড়ি পাওয়া যায়। সেগুলো ধরা নিয়েই মূলত দেশ দুটির মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।

আল-জাজিরার প্রতিবেদন অনুসারে, গেল কয়েক দশক যাবত চলা গৃহযুদ্ধের সময় লঙ্কান জেলেদের মাছ ধরতে বেরোনো পুরোপুরি বন্ধ ছিল। সেই সময় ভারতীয়রা অনেকটা অবাধে পক প্রণালী থেকে মাছ নিয়ে গেছে। কিন্তু ২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কায় গৃহযুদ্ধের অবসান ও জেলেদের মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হয়ে যাওয়ার পর থেকে শুরু হয় এই উত্তেজনা।

আরও পড়ুন : এক পেগ মদ খেয়ে ঘুমোতে যেতে দিন পুরুষদের

উল্লেখ্য, শ্রীলঙ্কায় নিয়মিত বহু ভারতীয় জেলে আটক ও তাদের নৌকা জব্দ হয়। এরপরও লঙ্কান জলসীমায় ভারতীয়দের অনুপ্রবেশ বন্ধের কোনো লক্ষণ দেখা যায়নি। ২০১৭ সালের মার্চ মাসে লঙ্কান বাহিনীর হাতে এক ভারতীয় জেলে প্রাণ হারানোর খবরও শোনা যায়।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড