• বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ৬ কার্তিক ১৪২৮  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

আফগান ইস্যুতে সার্ক বৈঠক নস্যাৎ

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:৫৭
আফগান ইস্যুতে সার্ক বৈঠক নস্যাৎ
আফগান ইস্যুতে সার্ক বৈঠক নস্যাৎ (ছবি : প্রতীকী)

যুদ্ধবিধ্বস্ত রাষ্ট্র আফগানিস্তান ইস্যুতে দক্ষিণ এশীয় আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থার (সার্ক) একটি পূর্ব নির্ধারিত বৈঠক বাতিল করা হয়েছে। আগামী শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সার্কভুক্ত রাষ্ট্রগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের অংশগ্রহণে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) প্রতিবেদন প্রকাশের মাধ্যমে ভারতীয় বার্তা সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, সদ্য কট্টর ইসলামিক সংগঠন তালেবানের হাতে চলে যাওয়া আফগানিস্তানসহ দক্ষিণ এশিয়ার মোট আটটি দেশ সার্কের সদস্য। এবারের সার্কের বৈঠকে আফগানিস্তানের ক্ষমতাসীন গোষ্ঠী তালেবানই প্রতিনিধিত্ব করুক, এমনটাই দাবি করেছিল প্রতিবেশী রাষ্ট্র পাকিস্তান। যদিও ভারতসহ সংগঠনের কয়েকটি সদস্য রাষ্ট্র এই প্রস্তাবে আপত্তি জানায়।

ভারতীয় মিডিয়া এনডিটিভির রিপোর্ট বলছে, সার্কের বৈঠকে আফগানিস্তানের প্রতিনিধি হিসেবে তালেবানের অংশগ্রহণ ইস্যুতে ঐক্যমত ও সম্মতির অভাবে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। আর তাই পূর্ব নির্ধারিত বৈঠকটি বাতিল করা হয়।

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের পরপরই প্রতি বছর সার্কের বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। এ বছর নেপাল ছিল বৈঠকটির আয়োজক দেশ। ভারতীয় মিডিয়াগুলোর দাবি, সার্কের অধিকাংশ সদস্য দেশই চেয়েছিল চলতি বছর বৈঠকে আফগানিস্তানের আসনটি ফাঁকা থাকুক। যদিও তাতে রাজি হয়নি ইসলামাবাদ। ফলে শেষ পর্যন্ত বৈঠকটি বাতিল হয়ে যায়।

দীর্ঘ ২০ বছর পর গত ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান দখলে নেয় তালেবান। চলতি মাসের শুরুর দিকে তালেবান নেতারা দেশের অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের প্রথম মন্ত্রিসভার ঘোষণা দেন। দেশটির সব সম্প্রদায় ও গোত্রের প্রতিনিধিত্বমূলক প্রশাসনের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হলেও প্রধান প্রধান মন্ত্রণালয়গুলোতে তালেবানের কট্টরপন্থি এবং অনুগতদেরই নিয়োগ দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন : ‘বারাদারকে ঘুষি মেরেছিলেন হাক্কানি’

কিন্তু তালেবান সরকার গঠন করলেও এখন পর্যন্ত কোনো রাষ্ট্রই সেই সরকারকে স্বীকৃতি দেয়নি। তবে পাকিস্তান এবং কাতার অবশ্য তালেবানের শাসনাধীন আফগানিস্তানকে স্বীকৃতি দিতে এবং তাদের সঙ্গে কাজ করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। এমনকি বিষয়টি নিয়ে জোরেশোরে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে পাকিস্তান।

ভারতীয় মিডিয়া হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, সার্কের চেয়ারম্যান নেপালের পক্ষ থেকে বাকি সদস্য রাষ্ট্রের সঙ্গে আফগানিস্তান ও তালেবানের প্রতিনিধিত্বের বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। যদিও সকল সার্ক দেশ এই বিষয়ে একমত হয়নি। তাই এবারের বৈঠকটি বাধ্য হয়েই বাতিল করা হয়। সার্ক সচিবালয়ের পক্ষ থেকে সদস্য দেশগুলোকে চিঠিও দেওয়া হচ্ছে।

বিশ্লেষকদের মতে, ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে সম্পর্কের উত্তেজনার কারণে অতীতেও সার্ক বৈঠক বাতিল হয়েছিল। সেই উত্তেজনা এখনো আছে। যদিও এবার প্রশ্ন দেখা দিয়েছে আফগানিস্তান নিয়ে। তালেবান এখন আফগান ভূখণ্ড দখল করে নিয়েছে। ফলে নয়াদিল্লি তালেবানের শাসন বৈধ কি না, তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছে।

আরও পড়ুন : অর্ধেক ভোট পেয়েই নির্বাচনে পুতিনের দলের জয়

ইসলামাবাদের দাবি, তালেবানের প্রতিনিধিকে সার্ক বৈঠকে অংশ নিতে দিতে হবে। আর তাদের প্রতিনিধি যে বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন নেপালকে সেটির নিশ্চয়তা দিতে হবে। যদিও নেপাল সেই নিশ্চয়তা এখনো দিতে পারেনি।

ভারতসহ কয়েকটি প্রতিবেশী দেশ তালেবানের প্রতিনিধির অংশগ্রহণের বিপক্ষে ছিল। তখন একটি প্রস্তাব আসে, আফগানিস্তানের চেয়ারটা ফাঁকা রেখেই বৈঠকটি আয়োজন করতে হবে। কিন্তু পাকিস্তান সেই প্রস্তাবে সম্মতি জানায়নি। তাই বৈঠক বাতিল করা ছাড়া বিকল্প কোনো উপায় ছিল না।

উল্লেখ্য, ১৯৮৫ সালে বাংলাদেশসহ সাতটি সদস্য দেশ নিয়ে সার্কের বর্তমান সদস্য সংখ্যা আটটি যাত্রা শুরু করা। ২০০৭ সালে আফগানিস্তান আনুষ্ঠানিকভাবে সার্কে যোগ দেয়।

আরও পড়ুন : আফগান নারীদের ঘরে থাকার নির্দেশ

সার্কের কার্যক্রম পরিচালিত হয় নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে অবস্থিত সার্ক সচিবালয়ের মাধ্যমে। সার্কের আটটি সদস্য দেশ হলো- বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, নেপাল, মালদ্বীপ, ভুটান ও আফগানিস্তান।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড