• মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৬ আশ্বিন ১৪২৮  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মিয়ানমারে জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে ‘প্রতিরোধ যুদ্ধ’ ঘোষণা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:৫৬
মিয়ানমারে জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে ‘প্রতিরোধ যুদ্ধ’ ঘোষণা
এনইউজির ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট দুয়া লাশি লা (ছবি : রয়টার্স)

মিয়ানমারে বিতর্কিত জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে ‘জনতার প্রতিরোধ যুদ্ধ’ ঘোষণা করেছে বার্মিজ ছায়া সরকার। মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) দেশটির জাতীয় ঐক্য সরকারের (এনইউজি) ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট দুয়া লাশি লা ফেসবুকে পোস্ট করা এক ভিডিয়োতে ঘোষণাটি দেন।

সেখানে তিনি বলেছেন, জনগণের জীবন ও সম্পত্তি রক্ষার দায়িত্ব থেকে জাতীয় ঐক্য সরকার সামরিক জান্তার বিরুদ্ধে ‘জনতার প্রতিরোধ যুদ্ধ’ শুরু করেছে। এটি একটি গণবিপ্লব। তাই দেশের প্রতিটি প্রান্তে সব নাগরিক মিন অং হ্লেইংয়ের নেতৃত্বাধীন ‘সামরিক সন্ত্রাসীদের’ শাসনের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করবে।

ভিডিয়ো বার্তায় দুয়া লাশি লা মিয়ানমার সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধ সংঘটনের অভিযোগও তোলেন। এমনকি জান্তার ওপর বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীকে ‘অবিলম্বে আক্রমণ’ করার আহ্বান জানান। পিপলস ডিফেন্স ফোর্স (পিডিএফ) সদস্যদের নিজ নিজ এলাকায় সামরিক জান্তা ও তাদের সম্পত্তিতে হামলা চালানোর নির্দেশও দেন বার্মিজ ছায়া সরকারের এই প্রধান।

এছাড়া জান্তা সরকারের নিয়োগ দেওয়া আমলাদের এখনই পদত্যাগের আহ্বান জানিয়েছেন এনইউজি নেতা। একই সঙ্গে সীমান্তরক্ষী ও বার্মিজ সেনাবাহিনীর সদস্যদের ‘জনগণের সঙ্গে যোগ দিতে এবং জনতার শত্রুদের আক্রমণ করতে’ বলেছেন দুয়া লাশি লা।

আরও পড়ুন : লিবিয়ায় গাদ্দাফিপুত্রের কারামুক্তি

তিনি আরও বলেন, সামরিক কাউন্সিলের অধীনে যত বেসামরিক কর্মচারী রয়েছেন, আজ থেকে আপনাদের অফিসে যেতে নিষেধ ও সতর্ক করে দিচ্ছি। আমরা মিন অং হ্লেইংকে অপসারণের মাধ্যমে মিয়ানমার থেকে স্বৈরশাসন উৎখাত করব। একটি শান্তিপূর্ণ গণতান্ত্রিক ইউনিয়ন প্রতিষ্ঠা করব, যা দেশের সব নাগরিকের সমান অধিকার সুরক্ষিত করবে।

গত ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারে বিতর্কিত সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে অং সান সু চির ন্যাশনাল লি ফর ডেমোক্র্যাসি (এনএলডি) সরকারকে হটিয়ে ক্ষমতা নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেয় দেশটির সামরিক বাহিনী। মূলত এর পরপরই জান্তাবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে মিয়ানমারের রাজপথ।

এরপর আন্দোলন দমনে চড়াও হয় সামরিক সরকারও। এতে এখন পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন সহস্রাধিক মানুষ এবং বন্দি হয়েছেন কয়েক হাজার বেসামরিক। এমন অবস্থায় জান্তা সরকারকে অবৈধ বলে ঘোষণা দিয়ে একটি ছায়া সরকার গঠন করে মিয়ানমারের রাজনীতিবিদরা। যাদের মধ্যে অধিকাংশ সদস্যই এনএলডির।

আরও পড়ুন : শিক্ষার্থীদের ওপর থেকে হিজাব নিষেধাজ্ঞা বাতিল উজবেকিস্তানে

জাতীয় ঐক্য সরকার (এনইউজি) নাম দিয়ে এটিকেই মিয়ানমারের বৈধ সরকার বলে দাবি করেন তারা। অবশ্য মিয়ানমার জান্তা এনইউজিকে ‘সন্ত্রাসী’ বলে ঘোষণা দিয়েছে। যার অর্থ, তাদের সঙ্গে যে কেউ আলাপ করলে বা যোগাযোগ রাখলেই আটক হতে পারেন।

সূত্র : আল-জাজিরা

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড