• বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৮ আশ্বিন ১৪২৮  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

যুক্তরাষ্ট্রে সাবেক সেনার গুলিতে নারী-শিশুসহ নিহত ৪

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:৩৩
যুক্তরাষ্ট্রে সাবেক সেনার গুলিতে নারী-শিশুসহ নিহত ৪
মরদেহ উদ্ধার করা হচ্ছে (ছবি : রয়টার্স)

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে বন্দুকধারীর হামলায় এক নারী ও তার তিন মাস বয়সী শিশুপুত্রসহ চারজনের প্রাণহানি ঘটেছে। এতে আহত হয়েছে ১১ বছর বয়সী একটি মেয়ে। রবিবার (৫ সেপ্টেম্বর) অঙ্গরাজ্যটির পোল্ক শহরে একটি বাসভবনে ঘটনাটি ঘটেছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

পোল্ক শহরের শেরিফ (প্রধান আইন কর্মকর্তা) গ্র্যাডি জাড গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, সন্দেহভাজন হামলাকারীকে এরই মধ্যে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারের সময় পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে গোলাগুলিতে ওই হামলাকারীও আহত হয়েছে। ওই ব্যক্তি বর্তমানে একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এছাড়া হাসপাতালে ১১ বছর বয়সী সেই মেয়েটিরও অস্ত্রোপচার চলছে, যার দেহে সাতটি গুলি বিদ্ধ হয়েছে।

রবিবার সংবাদ সম্মেলন করে শেরিফ জাড বলেছেন, হামলাকারী ওই ব্যক্তির নাম ব্রায়ান রিলে। তার বয়স ৩৩ বছর। সে যুক্তরাষ্ট্রের মেরিন সেনাবাহিনীর সাবেক সেনা সদস্য। ইরাক ও আফগানিস্তানে যুদ্ধ চলাকালে রিলের দেহরক্ষী ও নিরাপত্তাকর্মী হিসেবে দায়িত্ব পালনের অভিজ্ঞতা আছে।

ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে শেরিফ জাড সাংবাদিকদের বলেন, এবার যে বাসভবনে হামলাটি হয়েছে, শনিবার দিবাগত রাতে রিলে হঠাৎ সেখানে উপস্থিত হয়ে অসংলগ্ন কথাবার্তা বলছিলেন। এক পর্যায়ে ওই বাড়ির লোকজনদের সঙ্গে তার তুমুল তর্ক শুরু হয়।

আরও পড়ুন : পাঞ্জশিরে তালেবানবিরোধী সংগ্রাম চলবে : এনআরএফ

তর্কের এক পর্যায়ে গুলি ছুড়তে শুরু করে রিলে। আর এতেই ঘটনাস্থলে সেই বাসভবনের ৪০ বছর বয়সী এক ব্যক্তি, তার স্ত্রী (বয়স ৩৩) এবং তার কোলে থাকা তিন মাসের শিশু সন্তানের মৃত্যু হয়। এ সময় গুরুতর আহত হয় ওই বাড়ির ১১ বছর বয়সী মেয়েটি।

পরবর্তীকালে ওই বাসভবন থেকে বের হওয়ার সময় পাশের একটি বাড়ির ৬২ বছর বয়সী এক বৃদ্ধাকেও হত্যা করে রিলে। পুলিশের ধারণা, ওই বৃদ্ধা সম্পর্কে মৃত নারীর মা। তাছাড়া ওই পরিবারের কুকুরটিকেও সে গুলি করে হত্যা করেছে।

এর মধ্যে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে বাহিনীর সদস্যদের লক্ষ্য করেও গুলি ছুড়তে শুরু করে রিলে। এরপর আত্মরক্ষার্থে পুলিশও গুলি ছোঁড়ে। এর ফলেই গুলিবিদ্ধ হয়ে বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন সাবেক ওই সেনা কর্মকর্তা।

ঠিক কী কারণে ব্রায়ান রিলে এমন একটি নৃশংস হামলা সংঘটিত করল? সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের জবাবে জাড বলেন, রিলে দীর্ঘদিন যাবত মানসিক চাপ ও হতাশায় (পোস্ট ট্রমাটিক ডিসঅর্ডার) ভুগছিলেন। তার বান্ধবীর সঙ্গে আমাদের তদন্তকারী কর্মকর্তার কথা হয়েছে। তিনি (বান্ধবী) জানিয়েছেন, গত বেশ কিছুদিন যাবত রিলে অবসাদগ্রস্ত ছিল।

আরও পড়ুন : চীনা যুদ্ধবিমানের বহরকে তাইওয়ানের ধাওয়া

ওই বান্ধবীর সঙ্গে চার বছর ধরে রিলের সম্পর্ক রয়েছে জানিয়ে জাড দাবি করেন, গত প্রায় এক সপ্তাহ আগে তার মানসিক অবস্থার আরও অবনতি ঘটে। হামলার দিন দুয়েক আগে বান্ধবীর কাছে রিলে বলেছিল, সে নাকি ঈশ্বরের সঙ্গে কথা বলে।

সূত্র : রয়টার্স

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড