• রোববার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

৭ হাজার বন্দিকে মুক্তির বিনিময়ে যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব তালিবানের

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৬ জুলাই ২০২১, ১৪:৩১
৭ হাজার বন্দিকে মুক্তির বিনিময়ে যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব তালিবানের
আফগানিস্তানের কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়া তালিবান যোদ্ধারা (ছবি : রয়টার্স)

আফগানিস্তানের এক সরকারি কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ৭ হাজার বন্দিকে মুক্তি দেওয়ার শর্তে তিন মাসের যুদ্ধ বিরতির প্রস্তাব দিয়েছে সশস্ত্র বিদ্রোহী সংগঠন তালিবান। আফগান সরকারের আলোচক নাদের নাদেরি এ প্রস্তাবকে ‘বড় দাবি’ হিসেবে ব্যাখ্যা করেছেন।

তিনি আরও জানান, তালিবান নেতারা দাবি করেছেন, তাদের নাম জাতিসংঘের কালো তালিকা থেকেও বাদ দিতে হবে। এর প্রতিক্রিয়ায় সরকার এখনো কিছু জানায়নি।

ব্রিটিশ মিডিয়া বিবিসি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, গত বছর ৫ হাজার তালিবান বন্দি মুক্তি পেয়েছিল এবং মনে করা হচ্ছে তাদের মধ্যে অনেকেই যুদ্ধের ময়দানে আবার ফিরে এসে সহিংসতা আরও বাড়িয়ে তুলেছে। বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) আফগান সেনারা জানিয়েছেন, পাকিস্তানের সঙ্গে একটি বর্ডার ক্রসিং তারা তালিবানের কাছ থেকে পুনরুদ্ধার করেছে। কিন্তু তালিবান যোদ্ধারা এই দাবি অস্বীকার করছে।

গত সপ্তাহের শুরুর দিকে সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করা একটি ভিডিয়োতে দেখা গেছে, কন্দাহারের কাছে স্পিন বোলডাক ক্রসিংয়ের ওপর তালিবানের একটি সাদা পতাকা উড়ানো হচ্ছে।

আরও পড়ুন : রাশিয়ার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ জার্মানি-যুক্তরাষ্ট্র

এ দিকে যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটোর সদস্যরা ২০ বছরের যুদ্ধের পর অবশেষে আফগানিস্তান ত্যাগ করছে। যে তালিবানকে পরাজিত করতে তারা দেশটিতে এসেছিল সেই তালিবানই এখন দ্রুতগতিতে দেশটির বিভিন্ন এলাকা দখল করে নিচ্ছে। এই যুদ্ধ নানাভাবে আফগানিস্তানকে বদলে দিয়েছে। ভবিষ্যতে কী ঘটতে যাচ্ছে তাই এখন দেখার অপেক্ষা।

২০০১ সালে মার্কিন-নেতৃত্বাধীন বাহিনীর হাতে ক্ষমতাচ্যুত হয় তালিবান। এরপর দেশটিতে গণতান্ত্রিক প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হয় এবং একটি নতুন সংবিধান গৃহীত হয়। কিন্তু তালিবান এরপর এক দীর্ঘ বিদ্রোহী তৎপরতা শুরু করে। ক্রমান্বয়ে তারা আবার শক্তি সঞ্চয় করে এবং যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো বাহিনীকে আরও বেশি করে সংঘাতে জড়িয়ে ফেলে। কিন্তু এখন মার্কিন বাহিনী আফগানিস্তান থেকে তাদের সবশেষ সৈন্যদের প্রত্যাহার করে নিচ্ছে।

আরও পড়ুন : প্রেসিডেন্টের সঙ্গে দ্বন্দ্বে পদ ছাড়লেন লেবাননের হবু প্রধানমন্ত্রী

মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর থেকে আফগান সরকার ও তালিবান যোদ্ধাদের মধ্যে সংঘর্ষ তীব্র আকার ধারণ করে। তালিবান জানিয়েছে, তারা ইতোমধ্যে আফগানিস্তানের ৮৫ ভাগ এলাকা দখল করেছে। যদিও এ পরিসংখ্যান নিয়ে বিতর্ক আছে। অন্যান্য পরিসংখ্যান বলছে তালিবান আফগানিস্তানের ৪শ জেলার মধ্যে এক-তৃতীয়াংশ নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে। আফগান সেনারা দেশটিতে তালিবান যোদ্ধাদের অগ্রগতি থামাতে হিমশিম খাচ্ছে।

ওডি/কেএইচআর

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet