• শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ৪ আষাঢ় ১৪২৮  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

আজীবন কারাগারেই থাকছেন রাতকো ম্লাদিচ

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৯ জুন ২০২১, ১৫:৫৪
আজীবন কারাগারেই থাকছেন রাতকো ম্লাদিচ
বসনিয়ার কসাই খ্যাত রাতকো ম্লাদিচ (ছবি : বিবিসি নিউজ)

গণহত্যা ও মানবতাবিরোধী অপরাধের জন্য আজীবন কারাগারেই থাকতে হবে বসনিয়ার কসাই খ্যাত রাতকো ম্লাদিচকে। মঙ্গলবার জাতিসংঘের ৫ জন বিচারকের একটি বিশেষ প্যানেল ম্লাদিচের আপিল আবেদন খারিজ করে দিলে তার এ সাজা বহাল থাকে। ২০১৭ সালে তাকে আজীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন আদালত। এরপর এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন তার আইনজীবী।

সেখানে আইনজীবী উল্লেখ করেন, সার্বিয়া যুদ্ধের সময়ে ম্লাদিচের অধীনস্ত পুরো বাহিনীর দায় তাকে কেন নিতে হবে? ১৯৯৫ সাল সার্বিয়া যুদ্ধে ৮ হাজারেরও বেশি মুসলিম হত্যার অভিযোগ রাতকো ম্লাদিচের বিরুদ্ধে। যে হত্যাকাণ্ডকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ইউরোপের সবচেয়ে বড় গণহত্যা হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

আদালতে তার আপিল খারিজ হওয়ার বিষয়টিকে অভূতপূর্ব বলেছেন অনেকে। জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান মিশেল ব্রেসলেট বলেন, বিশ্ব বিচার ব্যবস্থায় ঘটনাটি একটি উদাহরণ। যদিও ম্লাদিচের বিচারকার্যে সময় লেগেছে বেশ।

রাতকো ম্লাদিচের আজীবন কারাগারে থাকার সাজা বহাল রাখাকে ঐতিহাসিক বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এক বিবৃতিতে তিনি এ যুদ্ধে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে আছেন বলেও ঘোষণা দেন।

আরও পড়ুন : নেটের অভাবে ডিজিটাল ইন্ডিয়ায় ক্লাস চলছে পাহাড়ের চূড়ায়

জাতিসংঘ মহাসচিবের বিশেষ পরামর্শক এলিস ওয়াইরিমু নেদারিতু বলেন, এ বিচার ক্ষতিগ্রস্থ এবং ভয়াবহতায় বেঁচে ফেরাদের জন্য ঐতিহাসিক নিশ্চিততা সরবরাহ করবে।

ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট বলেছেন, আদালতের এ রায় বিশ্ববাসীকে বেদনাদায়ক অতীতকে পিছনে ফেলে ভবিষ্যতের দিকে এগিয়ে যেতে সহায়তা করবে। আদালতের এ রায়কে স্বাগত জানিয়েছে তুরস্ক। এ ঘটানাকে ন্যায়বিচারের প্রতিক বলেছে দেশটি।

আরও পড়ুন : যুক্তরাষ্ট্রে ‘চ্যানেল ৭৮৬’ এর যাত্রা শুরু

গণহত্যার অভিযোগ ওঠার পর থেকেই পলাতক ছিলেন রাতকো ম্লাদিচ। অবশেষে ২০১১ সালে সার্বিয়া থেকে তাকে আটক করে বিচারের মুখোমুখি করা হয়।

সূত্র : দ্য গার্ডিয়ান, আল-জাজিরা

ওডি/কেএইচআর

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড