• বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ৩ আষাঢ় ১৪২৮  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

যুদ্ধবিরতির জন্য যুক্তরাষ্ট্রের দ্বারস্থ হয়েছিলেন নেতানিয়াহু

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৬ জুন ২০২১, ১৪:২১
যুদ্ধবিরতির জন্য যুক্তরাষ্ট্রের দ্বারস্থ হয়েছিলেন নেতানিয়াহু
ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু (ছবি : রয়টার্স)

গাজার শাসক দল হামাসের ভয়াবহ রকেট হামলা ঠেকাতে ব্যর্থ হয়েছিল ইহুদিবাদী রাষ্ট্র ইসরায়েল। আক্রমণ ঠেকাতে ব্যর্থ হয়ে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু যুদ্ধবিরতির জন্য যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ধর্না দিয়েছিলেন।

ইসরায়েলি পত্রিকা ইয়েদিয়োথ অহরোনথ খবরটি দিয়েছে। পত্রিকাটির সঙ্গে ইসরায়েলের সামরিক বাহিনীর বিশেষ সম্পর্ক রয়েছে বলে ধারণা করা হয়। খবর পার্সটুডের।

পত্রিকাটির তথ্য অনুসারে, ইসরায়েল জো বাইডেন প্রশাসনের সঙ্গে যুদ্ধবিরতির জন্য বারবার যোগাযোগ করেছে, যাতে আমেরিকা মিশর এবং আরও কয়েকটি দেশের ওপর চাপ সৃষ্টি করে যুদ্ধবিরতির ব্যবস্থা করে। তবে জো বাইডেন প্রশাসন বিষয়টি নিয়ে তেমন একটা আগ্রহ দেখায়নি তখন।

জানা গেছে, হামাস এবং ইসলামি জিহাদ আন্দোলনের ভয়াবহ রকেট হামলার মুখে যুদ্ধের ১১তম দিনে নিরুপায় হয়ে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতা কামনা করে ইসরায়েল। যুদ্ধের বিষয়ে যা ধারণা করা হয় এক্ষেত্রে বাস্তবতা ছিল তার বিপরীতে। অর্থাৎ ইসরায়েল এই যুদ্ধ করার জন্য এবং যুদ্ধবিরোধী অর্জনের জন্য প্রচেষ্টা চালিয়েছে।

আরও পড়ুন : ইসরায়েলের সরকারে যোগ দিচ্ছে ফিলিস্তিনি দল!

গাজা উপত্যকার পশ্চিম তীরে ইসরায়েলের উচ্ছেদ অভিযান চালানোর পর গত ১০ মে রকেট হামলা চালায় হামাস। এর জবাবে নারকীয় তাণ্ডব শুরু করে ইসরায়েল। বিমান হামলার পাশাপাশি গাজা সীমান্তে কামান-ট্যাংক থেকেও গোলাবর্ষণ করে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী। এতে নারী ও শিশুসহ ২৩২ ফিলিস্তিনি নিহত হয়। তাদের মধ্যে নারী ও শিশু ১০০ জন। আহত হয়েছেন প্রায় দুই হাজার। অন্য দিকে হামাসের ছোড়া রকেট হামলায় ১৩ ইসরায়েলি নিহত হন।

আরও পড়ুন : নতুন সরকার ইসরায়েলের জন্য বিপজ্জনক : নেতানিয়াহু

উল্লেখ্য, টানা দশ দিনের যুদ্ধের পর মিশরের মধ্যস্থতায় যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয় ইসরায়েল ও গাজার শাসক দল হামাস।

ওডি/কেএইচআর

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড