• মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ২৮ বৈশাখ ১৪২৮  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

‘ইরান-যুক্তরাষ্ট্র উভয়ই পরমাণু চুক্তি নিয়ে আগ্রহী’

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০২ মে ২০২১, ১৩:০৫
‘ইরান-যুক্তরাষ্ট্র উভয়ই পরমাণু চুক্তি নিয়ে আগ্রহী’
ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের পতাকা (ছবি : প্রতীকী)

২০১৫ সালে স্বাক্ষরিত পরমাণু চুক্তিতে ফিরতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান উভয়ই আগ্রহ দেখাচ্ছে। দুই দেশের মধ্যকার এই পরোক্ষ সমঝোতা এখন তেহরানের ওপর আরোপিত কি কি নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা যায় এবং চুক্তির বাধ্যবাধকতা স্বরূপ ইরানের আবশ্যিকভাবে কি পদক্ষেপ নেওয়া উচিত সেটা ফোকাস করছে।

শনিবার (১ মে) মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রশাসনের কর্মকর্তা জ্যাক সুলিভান গণমাধ্যমে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন। হোয়াইট হাউসের এই নিরাপত্তা উপদেষ্টার মতে, নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে এবং পরমাণু চুক্তিতে ফিরতে আলোচনায় ইরানসহ আমরা সব পক্ষের আগ্রহ দেখছি।

চলতি সপ্তাহে অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় বিশ্ব শক্তির সঙ্গে ইরানের পরমাণু চুক্তিতে ফেরা নিয়ে তৃতীয় দফার আলোচনা হয়। এরপর যুক্তরাষ্ট্রের একটি নিরাপত্তা গ্রুপের কাছে হোয়াইট হাউসের নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান এমন মন্তব্য করলেন।

ওয়েবিনারে এক নিরাপত্তা ফোরামে অংশ নিয়ে জ্যাক সুলিভান বলেছিলেন, এই মুহূর্তে আমি সমঝোতার বিষয়বস্তুর শ্রেণিবিন্যাস করতে যাচ্ছি না, কারণ সেগুলো এখনো অস্পষ্ট পর্যায়ে। এটা চুক্তিতে পর্যবসিত হবে কিনা সেটা এখনো নিশ্চিত না।

আরও পড়ুন : ইসরায়েলের তেল শোধনাগারে ভয়াবহ বিস্ফোরণ

ইরানকে পরমাণু অস্ত্র থেকে দূরে রাখতে ২০১৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও বিশ্ব শক্তিধর পাঁচ দেশ ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, চীন, রাশিয়া ও জার্মানি এক সমঝোতা চুক্তি করে। নামের আদ্যক্ষর দিয়ে ওই চুক্তি ‘জেসিপিওএ’ নামে পরিচিত।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১৮ সালে এই চুক্তি থেকে একতরফাভাবে যুক্তরাষ্ট্রকে বের করে নিয়ে যায় এবং ইরানের ওপর অধিক পরিমাণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। যার ফলে ইরান তাদের পারমাণবিক কেন্দ্রগুলোতে ফের ইউরেনিয়াম বাড়ানোর কাজ শুরু করে।

যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন চুক্তিতে ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি-২০১৫ ফিরবেন বলে অঙ্গীকার করেছেন। ইরান তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার না হলে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনায় বসতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। এরপর গত মাসে যুক্তরাষ্ট্রের পরোক্ষ উপস্থিতিতে ইরানের প্রতিনিধির সঙ্গে যুক্তরাজ্য, রাশিয়া, চীন, ফ্রান্সের প্রতিনিধিরা পরমাণু সমঝোতায় ফেরার বিষয়ে অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় আলোচনায় মিলিত হন।

আরও পড়ুন : ফিলিস্তিনে ১৫ বছর পর ঘোষিত নির্বাচন স্থগিত করায় বিক্ষোভ

ওয়েবিনার আলোচনায় মার্কিন নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভানকে প্রশ্ন করা হয়, আলোচনায় ইরান খাঁটি বিশ্বাসে অংশ নিয়েছে কিনা। জবাবে জ্যাক সুলিভান বলেন, সংলাপকারীদের চোখে সর্বদা শুভ-বিশ্বাস থাকে। ইরান গুরুগম্ভীরভাবে আলোচনায় এসেছে এবং সে অনুসারে কাজ করছে।

ওডি/কেএইচআর

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড