• মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ৩০ চৈত্র ১৪২৭  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

আমাকে দশবার শো-কজ করেও লাভ নেই : মমতা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৯ এপ্রিল ২০২১, ১১:৪১
আমাকে দশবার শো-কজ করেও লাভ নেই : মমতা
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেসের সভানেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (ছবি : কলকাতা ২৪)

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন চলছে। হাড্ডাহাড্ডি লড়াই আর উত্তেজনায় ভরপুর এই নির্বাচনের মধ্যে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেসের সভানেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে শো-কজ নোটিশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। তবে বারবার শো-কজ করে বা কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়ে কোনো লাভ হবে না বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। তার দাবি, দশবার শো-কজ করলেও তার জবাব হবে একই রকম।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচনি আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছেন, এই অভিযোগ তুলে গত বুধবার (৭ এপ্রিল) মমতাকে শো-কজ নোটিশ পাঠায় কমিশন। হুগলির তারকেশ্বরে গত ৩ এপ্রিল মমতার মন্তব্যে নির্বাচনি আচরণবিধি লঙ্ঘিত হয়েছে বলে কমিশন ওই চিঠিতে জানিয়েছিল। তবে বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) কমিশনের বিরুদ্ধে পাল্টা পক্ষপাতদুষ্ট আচরণের অভিযোগ তুলেছেন মমতা।

বৃহস্পতিবার হাওড়ায় অনুষ্ঠিত নির্বাচনি জনসভায় মমতা বলেন, আমাকে ১০ বার শো-কজ করেও লাভ নেই। একই জবাব দেব। কমিশনের অভিযোগ প্রসঙ্গে মমতা পাল্টা প্রশ্ন তুলে বলেন, নন্দীগ্রামে মুসলিমদের যারা পাকিস্তানি বলেছিলেন, তাদের বিরুদ্ধে ক’টা অভিযোগ হয়েছে? কেবল তৃণমূলের বিরুদ্ধে সব অভিযোগ?

বুধবারের নোটিশে মমতাকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করতে বলেছিল নির্বাচন কমিশন। না হলে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার মমতা পাল্টা হুঁশিয়ারিই দিয়েছেন কমিশনকে। তবে নোটিশের জবাব দিয়েছেন কি না তা জানা যায়নি।

গত ৩ এপ্রিল তারকেশ্বরের সভা থেকে ইন্ডিয়ান সেক্যুলার ফ্রন্ট (আইএসএফ)-এর আব্বাস সিদ্দিকির নাম না করে উপস্থিত জনতার উদ্দেশে মমতা বলেছিলেন, সংখ্যালঘু ভোট ভাগ হতে দেবেন না। বিজেপি এলে মনে রাখবেন সমূহ বিপদ, সবচেয়ে বেশি আপনাদের।

নির্বাচন কমিশনের দাবি, ধর্ম বা বর্ণের ভিত্তিতে ভোট চাওয়া নির্বাচনি আচরণবিধির লঙ্ঘন। কোনো প্রার্থীর বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ প্রমাণিত হলে জনপ্রতিনিধিত্ব আইন অনুযায়ী তার প্রার্থিতা বাতিলও করা হতে পারে। এরপরই ওই নোটিশ পাঠায় কমিশন।

আরও পড়ুন : ভারতে জ্ঞানবাপি মসজিদের নিচে মন্দিরের অস্তিত্ব খোঁজার নির্দেশ আদালতের

তবে দমে যাওয়ার পাত্র নন মমতা। বৃহস্পতিবারও বিজেপিকে আক্রমণ করেছেন অত্যন্ত কঠোর ভাষায়। মমতা বলেন, সব হোটেলে ভর্তি ভর্তি টাকা নিয়ে এসেছে বিজেপি। টাকা দিয়ে ভোট কিনে নিচ্ছে। বিজেপি’র টাকার কাছে বিক্রি হয়ে গেছে অনেক গাদ্দার।

ওডি/কেএইচআর

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড