• মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ৩০ চৈত্র ১৪২৭  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ইন্দোনেশিয়া-পূর্ব তিমুরে বন্যা-ভূমিধসে নিহত শতাধিক

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৫ এপ্রিল ২০২১, ১৫:৫২
ইন্দোনেশিয়া-পূর্ব তিমুরে বন্যা-ভূমিধসে নিহত শতাধিক
বন্যা-ভূমিধসে বিধ্বস্ত ইন্দোনেশিয়ার গ্রামাঞ্চল (ছবি : আল-জাজিরা)

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দ্বীপরাষ্ট্র ইন্দোনেশিয়া এবং প্রতিবেশী দেশ পূর্ব তিমুরে বন্যা ও ভূমিধসে সোমবার (৫ এপ্রিল) পর্যন্ত কমপক্ষে ১০১ জনের মৃত্যু হয়েছে। ভয়াবহ এ ঘটনায় নিখোঁজ রয়েছে বেশ কয়েকজন। দুই দেশের সরকারি হিসেবের বরাতে ব্রিটিশ মিডিয়া বিবিসি নিউজ এক প্রতিবেদনে তথ্যটি জানিয়েছে।

মৌসুমি বৃষ্টির কারণে দেশ দুটি ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়েছে। এবার প্রাণহানি ছাড়াও বৃষ্টির কারণে বাঁধ উপচে আশেপাশের এলাকা প্লাবিত হওয়ায় পানির নিচে তলিয়ে গেছে হাজার হাজার ঘরবাড়ি।

ইন্দোনেশিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় ফ্লোরস দ্বীপ থেকে পূর্ব তিমুর পর্যস্ত মারাত্মকভাবে বিপর্যস্ত হয়েছে। ইন্দোনেশিয়ায় এখনো ৪২ জন মানুষের কোনো খোঁজ মিলছে না। মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে শঙ্কা কর্মকর্তাদের।

দেশটির জাতীয় দুর্যোগ প্রশমন সংস্থার মুখপাত্র রাদিত্য জাতি সম্প্রচার মাধ্যম মেট্রো টিভিকে বলেছেন, ৭০ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। অবশ্যই তা আরও বাড়বে। ৪১ জনের খোঁজ মিলছে না।

ইন্দোনেশিয়ার সর্বশেষ পরিস্থিতি নিয়ে তিনি বলেছিলেন, কাদা এবং চরম আবহাওয়া একটি গুরুতর চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে এবং ধ্বংসাবশেষের কারণে সৃষ্ট স্তূপ উদ্ধারকারী দলের অনুসন্ধান কাজকে বাঁধাগ্রস্ত করেছে।

এ দিকে ইন্দোনেশিয়ার প্রতিবেশী দেশ পূর্ব তিমুরেও বৃষ্টির কারণে সৃষ্ট বন্যায় কমপক্ষে ২১ জনের প্রাণহানির খবর পাওয়া যাচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্ত বেশিরভাগ মানুষ দেশটির রাজধানী শহর দিলির বাসিন্দা বলে জানা যাচ্ছে।

আরও পড়ুন : মমতার পক্ষে ভোট চাইতে কলকাতায় জয়া বচ্চন

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদো প্রাণহানিতে শোক প্রকাশ করে চরম এই দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া থাকাকালীন সরকারি কর্মকর্তাদের নির্দেশনা ও পরামর্শ মেনে চলতে সব মানুষকে আহ্বান জানিয়েছেন।

ওডি/কেএইচআর

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড