• শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ৩ বৈশাখ ১৪২৮  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সোমালিয়ার পৃথক সেনা ঘাঁটিতে আল-শাবাবের ভয়াবহ হামলা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৪ এপ্রিল ২০২১, ১০:৫০
সোমালিয়ার পৃথক সেনা ঘাঁটিতে আল-শাবাবের ভয়াবহ হামলা
আক্রমণের জন্য প্রস্তুত আল-শাবাবের সশস্ত্র সদস্যরা (ছবি : রয়টার্স)

আফ্রিকার পূর্বাঞ্চলীয় দেশ সোমালিয়ার সামরিক বাহিনীর দুইটি সেনাঘাঁটিতে ভয়াবহ হামলা চালিয়েছে আল-শাবাব বিদ্রোহী গোষ্ঠীর সদস্যরা। শনিবার (৩ এপ্রিল) সকালে ঘটনাটি ঘটে।

রবিবার (৪ এপ্রিল) কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার খবরে বলা হয়, সোমালিয়ার সেনাবাহিনীর যে ঘাঁটি দুটিতে আক্রমণ করা হয়েছে তা রাজধানী মোগাদিসু শহর থেকে ১০০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে অবস্থিত।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, তারা দুইটি বিস্ফোরণ শুনতে পেয়েছেন। এছাড়া আক্রমণের পর রাজধানী থেকে রওনা দেওয়া সেনাবাহিনীর একটি বহরে তৃতীয় আক্রমণ করা হয়।

সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আডোয়া রেজ সাংবাদিকদের বলেন, আক্রমণকারীরা আঘাত হানার চেষ্টা করেছিল কিন্তু ব্যর্থ হয়েছে। সেনা সদস্যদের সাহসী সম্বোধন এবং ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের সেনাবাহিনী আক্রমণকারীদের কৌশল জানতো। সন্ত্রাসীরা পরাজিত হয়েছে, তাদের আহত এবং মৃতদেহ ছড়ানো ছিটানো রয়েছে। সাংবাদিকদের পরে বিস্তারিত তথ্য জানানো হবে বলেও দাবি করেন তিনি।

হুসেইন নুর নামে সেনাবাহিনীর এক কর্মকর্তা জানান, বারয়ার এবং আওধিঘলে সন্ত্রাসীদের আক্রমণে সেনাবাহিনী কয়েকজন সদস্য নিহত হয়েছে। তবে ঠিক কতজন নিহত হয়েছে সেটা জানাননি তিনি। তবে অন্য সেনা ঘাঁটি থেকে সেখানে অতিরিক্ত সৈন্য বাহিনী পাঠানো হয় এবং তারা অজ্ঞাত সন্ত্রাসীদের হত্যা করেন।

আরও পড়ুন : মিয়ানমারে ‘গেরিলা আঘাতের’ ডাক বিক্ষোভকারীদের

সেনাবাহিনী ওই দুই ঘাঁটি এবং আশেপাশের এলাকা নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে উল্লেখ করে ওই সেনা কর্মকর্তা বলেন, আমরা ওই সন্ত্রাসীদের পাশের জঙ্গলে ঠেলে দিয়েছি। যদিও আল-শাবাব অস্ত্রধারী গোষ্ঠীর দাবি, তারা বেশ সংখ্যক সেনা সদস্যকে হত্যা করেছে এবং সামরিক যান এবং অস্ত্র দখল করেছে।

ওডি/কেএইচআর

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড