• বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

হৃদরোগে মৃত্যুর পরও ফাঁসিতে ঝোলানো হলো নারীকে!

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৪:১৫
হৃদরোগে মৃত্যুর পরও ফাঁসিতে ঝোলানো হলো নারীকে!
ফাঁসির মঞ্চ (ছবি : প্রতীকী)

ফাঁসিতে ঝোলানোর আগেই হৃদরোগে মৃত্যু হয় স্বামীকে হত্যার দায়ে অভিযুক্ত এক নারীর। যদিও এরপরও সেই নিথর দেহটিকে ফাঁসিতে ঝোলানো হয়। এমনই অমানবিক ঘটনার অভিযোগ উঠেছে ইরানের রাজাই শাহর কারাগার কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। খবর আরব নিউজের

ওই নারীর নাম জাহরা ইসমাইলি। তার স্বামী আলীরেজা জামানি পেশায় একজন গোয়েন্দা কর্মকর্তা ছিলেন। আলীরেজা তার স্ত্রী ও দুই মেয়েকে নির্যাতন করতেন। আর এই নির্যাতনের হাত থেকে মেয়েদের বাঁচাতেই জাহরা স্বামীকে খুন করতে বাধ্য হন বলে তার আইনজীবীর দাবি। পরে স্বামীকে হত্যার দায়ে জাহরার মৃত্যুদণ্ডের সাজা হয়।

এ দিকে যে জেলে জাহরাকে ফাঁসি দেয়ার কথা ছিল, সেই রাজাই শাহর জেল বন্দিদের ওপরে অত্যাচারের জন্য কুখ্যাত।

জাহরার আইনজীবী ওমিদ মোরাদির অভিযোগ, ফাঁসির আগে আরও ১৬ জন সাজাপ্রাপ্তের পেছনে লাইনে দাঁড় করানো হয়েছিল দুই সন্তানের মা জাহরাকে। চোখের সামনে একের পর একজনকে ফাঁসিতে ঝুলতে দেখে সেই মানসিক ধাক্কা সামলাতে পারেননি তিনি। লাইনে দাঁড়িয়েই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় তার। কিন্তু তারপরেও তাকে ছাড় দেয়া হয়নি।

মৃত্যুর পরেও জাহরার দেহটি ফাঁসির মঞ্চে নিয়ে গিয়ে দড়িতে বেঁধে ঝোলানো হয়। যাতে ফাঁসিতে ঝোলানোর পর তার শাশুড়ি লাথি মেরে জাহরার পায়ের নিচ থেকে চেয়ারটি সরিয়ে দিতে পারেন।

আরও পড়ুন : মিয়ানমারে ফের নয়া আন্দোলনের পরিকল্পনা

মোরাদি আরও দাবি করেন, ডেথ সার্টিফিকেটে জাহরার মৃত্যুর কারণ হিসেবে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার কথাই উল্লেখ করা হয়েছে।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড