• বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ১৯ ফাল্গুন ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

যুক্তরাষ্ট্রে ইউনাইটেড এয়ারলাইন্সের বোয়িং-৭৭৭ বিমানের উড্ডয়ন বন্ধ

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৬:০৫
যুক্তরাষ্ট্রে ইউনাইটেড এয়ারলাইন্সের বোয়িং-৭৭৭ বিমানের উড্ডয়ন বন্ধ
ইউনাইটেড এয়ারলাইন্সের বোয়িং-৭৭৭ বিমান (ফাইল ছবি)

বোয়িং-৭৭৭ মডেলের একটি বিমানের ইঞ্জিন বিকল হওয়ার ঘটনার পর এই মডেলের সব বিমানের উড্ডয়ন বাতিল করেছে যুক্তরাষ্ট্রের ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স। তাদের কাছে এই মডেলের ২৪টি বিমান রয়েছে। খবর বিবিসি নিউজের

শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) উড্ডয়ন অবস্থায় ইঞ্জিন বিকল হলে ২৩১ জন যাত্রী এবং ১০ জন জন ক্রু বহনকারী বিমানটি ডেনভার বিমানবন্দরে ফিরে আসতে বাধ্য হয়। এ সময় বিমানের ইঞ্জিনে আগুন ধরে যায়। বিমানটি থেকে ছিটকে পড়া টুকরো আশেপাশের আবাসিক এলাকায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে থাকতে দেখা গেছে।

এই ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় জাপান বলেছে যেসব এয়ারলাইন্স বোয়িং-৭৭৭ উড়োজাহাজে প্র্যাট অ্যান্ড হুইটনি ৪০০০ ইঞ্জিন ব্যবহার করছে, এমন সমস্ত বিমান যেন তাদের আকাশসীমা এড়িয়ে চলে।

বোয়িং বলেছে, তারা জাপানের সিদ্ধান্তকে সমর্থন করে এবং একই ইঞ্জিন সম্বলিত বোয়িং-৭৭৭ এর সব কার্যক্রম তারা স্থগিত করার সুপারিশ করেছে।

ইঞ্জিন ব্যর্থতার ওই ঘটনা খতিয়ে দেখতে তদন্ত চলছে। নির্মাতা প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে যে বর্তমানে এই ইঞ্জিনটিসহ বিশ্বব্যাপী ৬৯টি বোয়িং ৭৭৭ সেবায় রয়েছে।

আরও পড়ুন : মেক্সিকোতে সামরিক বিমান বিধ্বস্তে নিহত ৬

যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় বিমান প্রশাসন বা ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফএএ) এর মতে, ইউনাইটেড হল যুক্তরাষ্ট্রের একমাত্র বিমান সংস্থা যারা এ জাতীয় বিমান চালাচ্ছে। এর বাইরে জাপান এবং দক্ষিণ কোরিয়া এ ধরনের বিমান চালিয়ে থাকে।

এফএএ জানিয়েছে, হনলুলুর উদ্দেশ্যে যাত্রা করা ইউনাইটেড ফ্লাইট ৩২৮ এর ডান দিকের ইঞ্জিনটি বিকল হয়ে যায়। এ ঘটনার পরে সংস্থাটি প্র্যাট অ্যান্ড হুইটনি ৪০০০ ইঞ্জিন সংযুক্ত বোয়িং ৭৭৭ বিমানগুলো বিশেষভাবে খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছে।

এফএএয়ের প্রশাসক স্টিভ ডিকসন বিবৃতির মাধ্যমে বলেছেন, আমরা গতকালের (শনিবারের) ঘটনার পরে নিরাপত্তা সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য পর্যালোচনা করেছি। প্রাথমিক তথ্যের ভিত্তিতে, আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে, এই মডেলের ইঞ্জিনে যে বিশেষ ধরণের ফাঁপা ফ্যান ব্যবহার করা হয় সেগুলোর ব্লেড পরীক্ষা নিরীক্ষা আগের চাইতে বাড়াতে হবে। কারণ এই ফ্যান শুধুমাত্র বোয়িং-৭৭৭ বিমানে ব্যবহৃত হয়।

আরও পড়ুন : মিয়ানমারের সড়কে কারফিউ ভেঙে চলছে ধর্মঘট

এফএএ এবার ওই ইঞ্জিন প্রতিষ্ঠান এবং বোয়িংয়ের প্রতিনিধিদের সঙ্গে দেখা করবে। যু্ক্তরাষ্ট্রের জাতীয় পরিবহন সুরক্ষা বোর্ডের প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা গেছে বেশিরভাগ ক্ষতি হয়েছে ডান দিকের ইঞ্জিনে, যেখানে দুটি ফ্যানের ব্লেড ফেটে গেছে এবং অন্যান্য ব্লেডগুলোও এর কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিমানের মূল কাঠামোয় বড় ধরনের কোনো ক্ষতি হয়নি।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড