• বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

এবার মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ফেসবুক পেজ বাতিল

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৩:৪৬
এবার মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ফেসবুক পেজ বাতিল
মিয়ানমারের সেনা সদস্য (ফাইল ছবি)

বিদ্যমান সহিংসতা উসকে দেওয়ার অভিযোগে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর একটি ফেসবুক পেজ বন্ধ করে দিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। গালফ নিউজের খবরে বলা হয়, রবিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) কর্তৃপক্ষ ‘ট্রু নিউজ’ নামে পেজটি বন্ধ করে দেয়।

গত ১ ফেব্রুয়ারি অভ্যুত্থান ঘটিয়ে ক্ষমতা দখল করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। এর পরই ক্ষোভে ফুঁসে উঠেছে মিয়ানমারের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। ২ ফেব্রুয়ারি থেকে দেশটির রাজধানী নেপিদো, প্রধান শহর ইয়াঙ্গুনসহ বিভিন্ন শহরে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ চলছে।

মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনী ধীরে ধীরে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে সহিংস আচরণ করতে শুরু করেছে। সামরিক অভ্যুত্থান বিরোধী বিক্ষোভে দেশটিতে এখন পর্যন্ত এক তরুণীসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) ম্যান্ডেলাই শহরে পুলিশের গুলিতে দুজন নিহত হয়।

স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চিকে তার রাজনৈতিক দল ন্যাশনাল লীগ ফল ডেমোক্রেসির (এনএলডি) অন্তত ২৪ জন নেতার সঙ্গে কাস্টডিতে নেওয়া হয়েছে। সামরিক সরকার সু চির বিরুদ্ধে অবৈধ ওয়াকিটকি রাখা ও পরিবেশ বিপর্যয় আইনে দুটি চার্জশীট গঠন করেছে। গত নভেম্বরে ভোট কারচুপির অভিযোগে অভ্যুত্থান করা হয়েছে বলে সেনাবাহিনী ক্ষমতা গ্রহণ বৈধ করার চেষ্টা করছে।

মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর পেজ বন্ধের বিষয়ে গালফ নিউজের খবরে বলা হয়, ওই ফেসবুক পেজে গত নভেম্বরে সু চি ভোট জালিয়াতি করে জয় পেয়েছে দাবি করা হয়। এছাড়া পেজটিতে বিক্ষোভকারীদের ভয় দেখানো হয়।

আরও পড়ুন : বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে মিয়ানমারকে জাতিসংঘের সতর্কবার্তা

ফেসবুকের একজন মুখপাত্র বলেন, ট্রু নিউজ ইনফরমেশনটি টিম নামে পেজটি কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ড লঙ্ঘন করার জন্য ডাউন করা হয়েছে। পেজটির মাধ্যমে সহিংসতা উসকে দেওয়া হচ্ছিল।

সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট সাম্প্রতিক বছরে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী সম্পৃক্ত শত শত পেজ নিষিদ্ধ করে। ওইসব পেজে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী নিয়ে বিদ্বেষমূলক পোস্ট করা হচ্ছিল। ২০১৭ সালে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের ওপর হত্যাযজ্ঞ চালায়। বিশ্বের সবচেয়ে নির্যাতিত জনগোষ্ঠী প্রায় ১০ রাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

জাতিসংঘ রোহিঙ্গা নির্যাতনের ঘটনা তদন্ত করে। সংস্থাটির তদন্তে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী গণহত্যা সংগঠিত করেছে উঠে আসে এবং তাদের বিচারের মুখোমুখি করার সুপারিশ করা হয়। এরপর ফেসবুক কর্তৃপক্ষ মিয়ামনারের সেনাবাহিনী প্রধান মিন অং হ্লাইং এবং শীর্ষ কিছু সেনা কর্মকর্তাকে ফেসবুক প্লাটফর্ম থেকে বিতাড়িত করে।

আরও পড়ুন : যুক্তরাষ্ট্রে সামরিক বিমান বিধ্বস্তে দুই পাইলটের মৃত্যু

এছাড়া ফেসবুক কর্তৃপক্ষ সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহরত সশস্ত্র গোষ্ঠী এবং কট্টরপন্থি বৌদ্ধ যারা মুসলিম সংখ্যালঘুদের ওপর সহিংসতা উসকে দিচ্ছিল তাদেরও নিষিদ্ধ করে।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড