• সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

১০ দেশের হাতেই ৭৫ শতাংশ টিকা : ক্ষুব্ধ জাতিসংঘ

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১১:৪৮
১০ দেশের হাতেই ৭৫ শতাংশ টিকা : ক্ষুব্ধ জাতিসংঘ
জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেস (ছবি : রয়টার্স)

বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের টিকা বিতরণ ব্যবস্থাকে ‘চরম অসম ও অন্যায্য’ উল্লেখ করে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। এমন ব্যবস্থার সমালোচনা করে সংস্থার মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেস জানিয়েছেন, মাত্র ১০ দেশের হাতে এখন পর্যন্ত উৎপাদন হওয়া টিকার ৭৫ ভাগ রয়েছে।

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সংস্থাটির সুরক্ষা কাউন্সিলের একটি উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে দেওয়া বক্তৃতায় এমন ক্ষোভ প্রকাশ করেন অ্যান্তনিও গুতেরেস। তিনি জানিয়েছেন, ১৩০টি দেশ এখনো টিকার কোনো ডোজ পায়নি।

বক্তৃতায় জাতিসংঘ প্রধান বলেছিলেন, এই কঠিন মুহূর্তে ভ্যাকসিন সমতাই বিশ্ব সম্প্রদায়ের জন্য সবচেয়ে বড় পরীক্ষা।

সকল দেশে ভ্যাকসিনের ন্যায্য বণ্টন নিশ্চিতের জন্য সংশ্লিষ্টদের নিয়ে জরুরি ভিত্তিতে একটি বৈশ্বিক ভ্যাকসিন প্রয়োগ পরিকল্পনার আহ্বান জানিয়েছেন গুতেরেস। এতে বিজ্ঞানী, ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ও অর্থ প্রদানকারীরা অন্তর্ভুক্ত থাকবেন।

আরও পড়ুন : হাসপাতালে প্রিন্স ফিলিপ

অধিকাংশ দেশ ভ্যাকসিন কর্মসূচির আওতায় না আসায় সমন্বয়হীনতাকে দুষছেন গুতেরেস। তিনি বলেন, টিকা সুষম বণ্টনই সবচেয়ে জরুরি। যত দ্রুত সম্ভব প্রতিটি দেশ যেন ভ্যাকসিন পায় বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে।

বৈঠকে গুতেরেস জি-২০ সদস্যভুক্ত অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী দেশগুলোর প্রতি একটি জরুরি টাস্কফোর্স গঠনের আহ্বান জানিয়েছেন। এতে অর্থ সহায়তা পাওয়া গেলে দ্রুত টিকা উৎপাদন করা সম্ভব মনে করেন তিনি।

আরও পড়ুন : পশ্চিমবঙ্গে মন্ত্রীর ওপর বোমা হামলায় হতাহত ১৩

উল্লেখ্য, বিশ্বের উন্নত দেশগুলো ইতোমধ্যে নিজ দেশের জনগণকে টিকা প্রয়োগ করে আসছে। কিন্তু অনেক দরিদ্র ও উন্নয়নশীল দেশে ভ্যাকসিন না পৌঁছানো গেলে করোনা নিয়ন্ত্রণে আসা সম্ভব নয় মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড