• বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৪ মাঘ ১৪২৭  |   ১৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ফের লকডাউনে মালয়েশিয়া

  আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া প্রতিনিধি

১২ জানুয়ারি ২০২১, ১৪:০৩
ফের লকডাউনে মালয়েশিয়া
জনশূন্য রাজপথ (ছবি : মালয় টাইমস)

মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ফের লকডাউনে গেল মালয়েশিয়া। সোমবার (১১ জানুয়ারি) বিকালে জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে প্রধানমন্ত্রী তান সেরী মুহিউদ্দিন ইয়াসিন ঘোষণাটি দেন।

দেশটির রাজধানী কুয়ালালামপুর, পুত্রাজায়া, সেলঙ্গর, সাবাহ, জোহর, মালাকা, পুলাউ পেনাং ও লাবুয়ান অঞ্চলে আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে ২৬ জানুয়ারি পর্যন্ত মোট ১৪ দিনের মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার বা সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন (এমসিও) জারি করা হয়েছে।

লকডাউন চলাকালীন সময়ে উৎপাদন, নির্মাণ, পরিষেবা, বাণিজ্য ও বিতরণ, বৃক্ষরোপণ ও পণ্যাদি অপরিহার্য অর্থনৈতিক ক্ষেত্রগুলো পরিচালনা করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

গত মার্চ মাসে সরকার প্রথমে সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ আইন ১৯৮৮ এবং পাশাপাশি পুলিশ অ্যাক্ট ১৯৬৭ এর অধীনে ধর্মীয়, খেলাধুলা, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক গণসমাবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল।

আরও পড়ুন : ওয়াশিংটনে জরুরি অবস্থা জারির অনুমোদন ট্রাম্পের

সে সময় সুপার মার্কেট, পাবলিক মার্কেট, বিভিন্ন জিনিসপত্র ও নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস বিক্রি করা দোকান ব্যতীত সব উপাসনা ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল।

তবে সরকার ধীরে ধীরে তা শিথিল করে। বেশিরভাগ শিল্প প্রতিষ্ঠান খোলার চেষ্টা করে এবং বেশিরভাগ সামাজিক অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের অনুমতি দেয়।

শর্তসাপেক্ষে এমসিও, এমসিও ও পুনরুদ্ধার এমসিওসহ বিভিন্ন ধরনের এমসিওর অধীনে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছিল। কিন্তু তৃতীয় দফায় করোনা সংক্রমণে প্রতিদিনই বাড়তে থাকে আক্রান্তের সংখ্যা।

আরও পড়ুন : ইতিহাস রচনা করলেন ভারতের চার নারী পাইলট

সম্প্রতি এ সংখ্যা ৩ হাজার ছাড়ানোর পর আবারও মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার চালুর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিল দেশটির সরকার। এমসিও চলাকালে গেল বছরের মার্চের ন্যায় অরও ১৪ দিন নিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন করতে দেশের জনগণকে।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড