• মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭  |   ২২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মার্কিন বাহিনীর ঘরে ফেরার সময় হয়েছে : পেন্টাগন

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৬ নভেম্বর ২০২০, ০৯:২৮
মার্কিন বাহিনীর ঘরে ফেরার সময় হয়েছে : পেন্টাগন
মধ্যপ্রাচ্যে যুদ্ধরত মার্কিন সেনা সদস্যরা (ছবি : প্রতীকী)

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন বাহিনীর প্রত্যাহার ত্বরান্বিত করার ইঙ্গিত দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস্টোফার মিলার। তিনি বলেছেন, মার্কিন বাহিনীর দেশে ফেরার সময় হয়েছে। নিয়োগ পাওয়ার পর সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের উদ্দেশে দেওয়া নিজের প্রথম ভাষণে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

ভিন দেশের যুদ্ধ থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে গুটিয়ে নেওয়ার ট্রাম্পের অঙ্গীকারের প্রতি নিজের জোরালো অবস্থানের কথা জানান ক্রিস্টোফার মিলার। তার মতে, সব যুদ্ধের অবসান ঘটাতে হবে। তবে আমেরিকা যেন আল কায়েদার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ব্যর্থ না হয়।

সামরিক বাহিনীর উদ্দেশে ক্রিস্টোফার মিলার বলেন, আমরা চ্যালেঞ্জের মোকাবিলা করেছি। আমাদের সবকিছু দিয়েছি। এখন বাড়ি ফেরার সময় হয়েছে।

আরও পড়ুন : সাইপ্রাসকে দুটি আলাদা রাষ্ট্র বানাতে চান এরদোগান

তিনি দাবি করেন, আমরা চিরস্থায়ীভাবে যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার লোক নই। অবশ্যই যাবতীয় যুদ্ধের ইতি ঘটাতে হবে।

৩ নভেম্বর নির্বাচনের চার দিনের মাথায় ৭ নভেম্বর ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রার্থী জো বাইডেন বিজয় নিশ্চিত করতে সমর্থ হন। নিজের পরাজয় নিশ্চিতের দুই দিনের মাথায় ৯ নভেম্বর নতুন ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী নিয়োগ দেন ট্রাম্প। একই সঙ্গে নির্বাচনের ফল প্রত্যাখ্যান করে আইনি লড়াই চালিয়ে যাওয়ারও ঘোষণা দেন তিনি।

আরও পড়ুন : ১৯৮৯ সালের পর প্রথম এক মেয়াদের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প

শনিবারের (১৪ নভেম্বর) ভাষণে মার্কিন বাহিনী প্রত্যাহারের জন্য সুনির্দিষ্টভাবে কোনো দেশের নাম নেননি মিলার। যদিও তিনি এবার আল-কায়েদার কথা উল্লেখ করেছেন। ফলে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, নাম না নিলেও তিনি মূলত আফগানিস্তানের দিকে ইঙ্গিত করেছেন।

সূত্র : ডিডব্লিউ

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড