• মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭  |   ২২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ট্যাংক ধ্বংসকারী ভয়ঙ্কর ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ ভারতের

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৩ অক্টোবর ২০২০, ০৮:৪২
ট্যাংক ধ্বংসকারী ভয়ঙ্কর ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ ভারতের
ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হচ্ছে (ছবি : প্রতীকী)

এশিয়ার পরাশক্তি চীনের সঙ্গে সীমান্ত সংঘাত সামনে রেখে ফের ভয়ঙ্কর ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করেছে প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারত। এবার রাজস্থানের পোখরানে সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি ট্যাংক বিধ্বংসী ‘নাগ’ ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে দেশটির প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা (ডিআরডিও)।

সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) পোখরানের ফিল্ড ফায়ারিং রেঞ্জে পরীক্ষামূলকভাবে উৎক্ষেপণ করা হয়েছে নাগ অ্যান্টি-ট্যাংক গাইডেড মিসাইলটির। প্রত্যাশা অনুযায়ী নির্ভুলভাবে লক্ষ্যে আঘাত করে ক্ষেপণাস্ত্রটি।

ডিআরডিও সূত্রের বরাতে ভারতীয় মিডিয়াটির দাবি, পরিস্থিতি বুঝে শূন্য আকাশ ও জমি থেকে ছোড়া যায় এই ক্ষেপণাস্ত্র। চার থেকে সাত কিলোমিটার পর্যন্ত নিখুঁতভাবে নিশানায় আছড়ে পড়ে নাগ। এমনকি ইনফ্রারেড সেন্সরের মাধ্যমে শত্রু শিবিরের ট্যাংক বের করে সেটির ওপর মুহূর্তেই হামলা করতে সক্ষম অস্ত্রটি।

এতে অত্যাধুনিক ‘সিকার’ (এক ধরনের সেন্সর) থাকায় দিন বা রাত যে কোনো সময় প্রতিপক্ষের ট্যাংক ও দ্রুতগতিতে চলা সামরিক যান খুঁজে বের করতে সক্ষম এই ক্ষেপণাস্ত্র।

আরও পড়ুন : ইরানের অর্ধেক দেশ নিয়ে শুরু ভয়ঙ্কর সামরিক মহড়া

বিশ্লেষকদের মতে, বিগত দুই মাসে ১০টিরও বেশি মিসাইল পরীক্ষা করে বেইজিংকে আক্রমণের ইঙ্গিত দিয়েছে নয়াদিল্লি। মিসাইলগুলোর মধ্যে রয়েছে আণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম অগ্নি থেকে ট্যাংক বিধ্বংসী নাগ মিসাইল। যদিও আগ বাড়িয়ে কোনো হামলা নয়, নিজের ভূমির অখণ্ডতা বজায় রাখতে ভারতীয় শিবির পাল্টা জবাব দেবে বলে জানাচ্ছে কর্তৃপক্ষ।

লাদাখ সীমান্তে আগ্রাসনের পর যুদ্ধের প্রস্তুতির কথা বলছে ভারত। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী থেকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং পর্যন্ত বার্তা দিয়েছেন, ভারত শান্তি চায়। কিন্তু হানাদার বাহিনীকে জবাব কীভাবে দিতে হয় তা জানে ভারতীয় সেনাবাহিনী।

আরও পড়ুন : মিয়ানমার সীমান্তে ভারতীয় সেনাদের ওপর হামলায় জওয়ান নিহত

এ দিকে গত সেপ্টেম্বরে বালাসোরের এপিজে আব্দুল কালাম টেস্টিং রেঞ্জ থেকে মিসাইলটির (হাইপারসনিক টেস্ট ডেমোনস্ট্রেটর ভেহিকল) সফল পরীক্ষা চালিয়েছে ভারত। যা বিশ্বের আর মাত্র তিনটি দেশে আছে, প্রথমে রাশিয়া, এরপর চীন এবং পরে যুক্তরাষ্ট্র হাইপারসনিক যুগে প্রবেশ করে। এবার সেই তালিকায় ভারতও।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড