• শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ৯ কার্তিক ১৪২৭  |   ২৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

প্রথম দফার ভ্যাকসিন পাবে ৩০ কোটি ভারতীয় 

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৭ অক্টোবর ২০২০, ১৭:২৯
করোনা
ছবি : সংগৃহীত

বিভিন্ন দেশে ট্রায়ালের শেষ ধাপে রয়েছে করোনার সম্ভাব্য বেশ কিছু ভ্যাকসিন। প্রতিযোগিতায় রয়েছে ভারতও। দেশটিতে মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগ প্রতিরোধে সম্ভাব্য যে ভ্যাকসিনের পরীক্ষা চলছে তা ব্যবহারের অনুমোদন পেলে প্রথম দফায় ৩০ কোটি ভারতীয় ভ্যাকসিন পাবেন বলে জানানো হয়েছে।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, যাদের করোনায় সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি অগ্রাধিকারভিত্তিতে প্রথম দফায় এমন ৩০ কোটি মানুষ ভ্যাকসিন পাবেন। তালিকায় থাকা চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ, পরিচ্ছন্নতা কর্মী, বয়স্ক ও ‘কো-মর্বিডিটি’ রয়েছেন এমন মোট ৬০ কোটি মানুষকে দেয়া করোনা ভ্যাকসিনের ডোজ।

ব্যবহারের ছাড়পত্র পেলে প্রথম দফায় দেয়া হবে বুস্টার ডোজ। এ তালিকায় থাকছেন ৫০ থেকে ৭০ লাখ চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী, ২ কোটিরও বেশি ফ্রন্টলাইন কর্মী (পুলিশ, মিউনিসিপাল কর্মী, সশস্ত্র বাহিনী), ৫০ বছর বা তার বেশি বয়সী প্রায় ২৬ কোটি মানুষ এবং ৫০ এর কম বয়সী অথচ ‘কো-মর্বিডিটি’ রয়েছে এমন মানুষ।

ভারতে বর্তমানে মানবদেহে পরীক্ষা চালানো হচ্ছে সম্ভাব্য তিনটি ভ্যাকসিনের। এর মধ্যে তৃতীয় ধাপের ট্রায়াল চলছে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি ভ্যাকসিনের। দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে, আগামী নভেম্বরের শেষ অথবা ডিসেম্বরের শুরুরদিকে ভ্যাকসিনটির তৃতীয় ধাপের ট্রায়ালের তথ্য হাতে আসবে।

বিভিন্ন কেন্দ্রীয় ও রাজ্য পর্যায়ের সংস্থার কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বিশেষজ্ঞদের একটি দল ভ্যাকসিন দেয়ার প্রক্রিয়া সংক্রান্ত খসড়া তৈরি করেছে। ভারতে অগ্রাধিকারভিত্তিতে ভ্যাকসিন দেয়ার কর্মপরিকল্পনা তৈরি করার আগে তারা পর্যবেক্ষণ করেছেন সিডিসি, অ্যাটলান্টা এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার খসড়া।

প্রথম দফায় দেশের মোট জনসংখ্যার ২৩ শতাংশকে ভ্যাকসিন দেয়ার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে ভারত।

ওডি/

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড