• সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

লাদাখে ৬০ হাজার সেনা মোতায়েন করেছে চীন

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১০ অক্টোবর ২০২০, ১৪:৩৫
লাদাখ
লাদাখে চীনা সৈন্য (ছবি : সংগৃহীত)

বহুল বিতর্কিত ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার আশপাশে চীন ৬০ হাজারের বেশি সৈন্য মোতায়েন করেছে বলে জানিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। শনিবার ভারতীয় সরকারি সংবাদ সংস্থা প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়ার (পিটিআই) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, বেইজিংয়ের খারাপ আচরণ এবং ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের দেশগুলোর জন্য হুমকি হয়ে ওঠার সমালোচনাও করেছেন তিনি।

ভারত-প্রশান্ত মহাভারতীয় অঞ্চলের দেশ- যুক্তরাষ্ট্র, জাপান ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা মঙ্গলবার টোকিওতে বৈঠক করেন। করোনাভাইরাস মহামারি শুরু হওয়ার পর এটাই ছিল তাদের প্রথম সাক্ষাৎ।

দক্ষিণ চীন সাগর, ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল এবং লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় চীনের সামরিক আগ্রাসন নিয়ে প্রতিবেশিদের সঙ্গে উত্তেজনার মাঝে টোকিওতে ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার দ্য গাই বেনসন শোতে অংশ নিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ভারতীয়রা তাদের উত্তরাঞ্চলীয় সীমান্তে চীনের ৬০ হাজারের বেশি সৈন্য দেখছে। চীনের কমিউনিস্ট পার্টির আধিপত্য ঠেকাতে আমরা একটি গ্রুপ দাঁড় করিয়েছি। এটাকে আমরা কোয়াড বলছি। চার বৃহত্তম গণতান্ত্রিক দেশ, চার শক্তিশালী অর্থনীতি ও চারটি দেশ যাদের প্রত্যেকের জন্য প্রকৃত হুমকি তৈরি করেছে বেইজিং।

তিনি বলেন, আমি ভারত, অস্ট্রেলিয়া, জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলাম। প্রত্যেকটি দেশ বেইজিংয়ের হুমকির মুখোমুখি হয়েছে।

আরও পড়ুন : শেষ ফরাসি জিম্মি মারয়াম ফিরলেন মুসলিম বেশে

ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে অবাধ ও স্বাধীন নৌ-চলাচলের উপায় বের করতে ২০০৭ সালে যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, অস্ট্রেলিয়া ও ভারত কোয়াড নামে সংলাপের সূচনা করেছিল। ১০ বছরের বেশি সময় ধরে এই সংলাপ স্থগিত থাকার পর গত মঙ্গলবার আবারও কোয়াডের সদস্য দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা টোকিওতে মিলিত হন।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড