• বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

আর্মেনিয়া- আজারবাইজান যুদ্ধ: বিশ্বের কোন দেশ কার পক্ষে?

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২১:০৪
যুদ্ধ

নাগরনো-কারাবাখ অঞ্চলের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আজারবাইজানের পক্ষে থাকলেও নাছোড়বান্দা আর্মেনিয়া, কিছুতেই ছাড়ছে না ভূমি। বিতর্কিত নাগরনো-কারাবাখ অঞ্চলে তুমুল গোলাবর্ষণ চলছে। এই সংঘর্ষে এপর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে প্রায় ১০০ জনের। এ যুদ্ধে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ভিন্ন ভিন্ন মত বা পক্ষ বেছে নিয়েছে।

আমেরিকা: আমেরিকা দুই দেশের যুদ্ধবিরতি চায় বলে বিবৃতি দিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্ট বলেছে, আমরা দুই দেশকেই তাগিদ দিচ্ছি সরাসরি আলোচনার মাধ্যমে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনা কমিয়ে আনার জন্য।

ইরান: ইরানও আমেরিকার মতো যত দ্রুত সম্ভব যুদ্ধ পরিস্থিতির অবসান চায় বলে জানিয়েছে। ইরানের পররাষ্টমন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জানিয়েছেন, তারা নিবিড়ভাবে এই ঘটনাটি পর্যবেক্ষণে রেখেছেন এবং একইসাথে তারা উদ্বিগ্ন। তবে দুই দেশকে আলোচনায় বসার জন্য মধ্যস্থতা করতে প্রস্তুত বলে জানায় তেহরান।

পাকিস্তান: ইসলামাবাদ আজারবাইজানের পক্ষে বলে স্পষ্ট ভাষায় বিবৃতি দিয়েছে। তারা জানায়, পাকিস্তান অবশ্যই নাগোরনো ও কারাবাখের নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত। পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেন, 'আর্মেনিয়ান সেনাবাহিনীর ভূমিকা নিন্দনীয় এবং অশুভ। আমরা আজারবাইজানের দাবির প্রতি সমর্থন জানাই।'

আরও পড়ুন- চলছে তুমুল গোলাবর্ষণ, খেই হারিয়ে ফেলছে আর্মেনিয়া

ভ্যাটিক্যান: ভ্যাটিক্যানের পোপ ফ্রান্সিস বলছে, আমি এই অঞ্চলে শান্তির জন্য প্রার্থনা করছি। তিনি জানান, অস্ত্র দিয়ে নয়, উভয়পক্ষকেই আলোচনার মাধ্যমে এই সমস্যার সমাধান করতে হবে।

জার্মানি, ফ্রান্স, রাশিয়া: এই তিন দেশই নিজেদের উদ্বিগ্নতা প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছে। তারা চায় দ্রুত এ সমস্যার সমাধান হোক। এরমধ্যে রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন আর্মেনিয়ান প্রধানমন্ত্রী নিকোলে পেশিনিয়ানের সাথে কথা বলে বড় ধরনের হামলা এড়ানোর জন্য সম্ভবপর সময়ে আলোচনায় বসে যুদ্ধের পরিসমাপ্তির পরামর্শ দিয়েছে।

তুরস্ক: এই যুদ্ধে তৃতীয় রাষ্ট্র হিসেবে যে নামটি আসছে, সেটি হলো তুরষ্ক। আর্মেনিয়া সরকারের পক্ষে দাবি করা হয়েছে সিরিয়া থেকে ৪ হাজার সৈন্য পাঠিয়েছে তুরস্ক। এদিকে তুরস্ক এই যুদ্ধে আজারবাইজানের পক্ষে থেকে পূর্ণ সমর্থন দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

তুর্কি প্রতিরক্ষা মন্ত্রী হুলুসি আকার ঘোষণা দিয়েছেন, আমার আমাদের সমস্ত শক্তি দিয়ে আজারবাইজানের ভাইদের পক্ষে সমর্থন জোগাবো তাদের সার্বভৌমত্ম ও নিজেদের অঞ্চল রক্ষার্থে।

এছাড়াও জাতিসংঘ এবং ওআইসি পৃথক বিবৃতিতে দুই পক্ষকেই যুদ্ধবিরতির অনুরোধ জানিয়েছে।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড