• মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পাকিস্তানের বর্বরতা বন্ধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহায়তা চায় বেলুচরা 

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৬:৪৯
করোনা
ছবি : সংগৃহীত

পাকিস্তানের বৃহত্তম প্রদেশ বেলুচিস্তানের স্বাধীনতার দাবি অনেক পুরনো, অনেকটা ভারত বা পাকিস্তান-শাসিত কাশ্মীরের মতোই। পাকিস্তান পিছিয়ে থাকা এই অঞ্চলটিতে স্বাধীনতাকামী বেলুচদের দমাতে সামরিক বাহিনী দিয়ে নির্যাতন-নিপীড়নের পথ বেছে নিয়েছে। বেলুচিস্তানে পাকিস্তানের সেনাবাহিনী কার্যত ভিনদেশি আগ্রাসী বাহিনীর মতো করে দমননীতি জারি রেখেছে।

বেলুচ অধিকারকর্মীরা পাকিস্তান থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র গড়তে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহায়তা কামনা করেছেন। বেলুচিস্তানের স্বাধীনতা ও পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর নির্যাতন-নিপীড়ন বন্ধে আন্তর্জাতিক সমর্থন আদায়ের লক্ষ্যে প্রবাসী বেলুচরা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বিক্ষোভ-সমাবেশ অব্যাহত রেখেছে।

সম্প্রতি ভারতের ৭৩তম স্বাধীনতা দিবসে ভারতের জনগণের প্রতি সংহতি জানিয়ে বেলুচ অধিকারকর্মীরা পাকিস্তান থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র গড়তে দিল্লির সহায়তা কামনা করেছেন বলে ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই-এর এক প্রতিবেদনে জানা গেছে।

আশরাফ শারজান নামের একজন বেলুচ অধিকারকর্মী ভারতের স্বাধীনতা দিবসে সে দেশের মানুষের জন্য শুভকামনা জানিয়ে বলেন, 'আমরা জাতিসংঘসহ অন্যান্য সংস্থায় আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাধীন বেলুচিস্তানের পক্ষে আওয়াজ তুলতে ভারতের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।' আত্তা বেলুচ নামে অপর এক অধিকারকর্মী বলেন, 'গত ৭০ বছরে ভারতীয়দের অর্জিত সফলতা তাদের জন্য গর্বের বিষয়। আজ বিশ্বজুড়ে ভারতীয়রা গর্বিত। তাদের সংহতি ও সহযোগিতার জন্য আমরা বেলুচরা কৃতজ্ঞ। আমরা চাই, বেলুচিস্তানের স্বাধীনতার জন্য তারা আওয়াজ তুলুক। তাদের সহযোগিতা আমাদের দরকার। জয় হিন্দ।'

এর আগে বেলুচিস্তানে ডেথ স্কোয়াড এবং পাকিস্তানি সামরিক বাহিনীর হাতে বেলুচ নারীদের হত্যা ও ধর্ষণের প্রতিবাদে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটের সামনে পাকিস্তানবিরোধী বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে যুক্তরাজ্যের ব্রাহ্ম সংহতি কমিটি। গত ২০ জুলাই ভারতীয় গণমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এ বিক্ষোভের খবর প্রকাশ করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বেলুচিস্তানে ক্রমবর্ধমান মানবাধিকার লঙ্ঘন এবং হরনাইয়ে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর হাতে কায়সার চালগারির ৯ বছরের মেয়ে নাজ বিবিসহ তার পরিবারকে হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষোভকারীরা বেলুচিস্তানের স্বাধীনতার দাবি ও পাকিস্তানবিরোধী স্লোগান দেয়।

বালুচ ন্যাশনাল মুভমেন্ট ইউকে জোনের সভাপতি হাকিম বেলুচ বলেছেন, 'যুক্তরাজ্যের বেলুচ সম্প্রদায় বেলুচিস্তানে পাকিস্তানের সামরিক কর্মকাণ্ড এবং ডেথ স্কোয়াডের তীব্র নিন্দা জানায়।' বেলুচিস্তান রাজি জ্রুমবেশের নেতা আবদুল্লাহ বেলুচ বলেছেন, 'বেলুচিস্তানে বিপর্যয় ও সন্ত্রাস সৃষ্টির জন্য সেখানে ডেথ স্কোয়াড দিয়েছে পাকিস্তান। তারা নিরীহ বেলুচ নারীদের হত্যা করে এবং বাড়িতে বাড়িতে আক্রমণ করে পুরো বালুচ সম্প্রদায়কে ভয় দেখাতে চায় যাতে লোকেরা নিরাপত্তাহীনতায় ভোগে।'

তিনি আরো বলেন, বেলুচিস্তান প্রদেশের বিপুলসংখ্যক রাজনৈতিক কর্মী, বুদ্ধিজীবী, নারী ও শিশুকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে গেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থা। তাদের অনেকে বন্দিশিবিরে রয়েছেন এবং অপহৃত এ বেলুচদের কয়েকজনের ছিন্নভিন্ন মরদেহ বিভিন্ন স্থানে পাওয়া গেছে।

ইউরোপ ও বিশ্বের অন্য অঞ্চলে আশ্রয় নেওয়া বিপুলসংখ্যক বেলুচ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমর্থন বাড়াতে এবং বেলুচিস্তানে মানবাধিকার লঙ্ঘন বন্ধে পাকিস্তান ও এর আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থাগুলোর ওপর চাপ সৃষ্টি করতে বিক্ষোভ অব্যাহত রেখেছে।

১৯৪৮ সাল থেকে বেলুচিস্তানের জনগণ পাকিস্তানি দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করে আসছে। এ পর্যন্ত স্বাধীনতার দাবিতে প্রায় ১০ বার পাকিস্তানি বাহিনীর বিরুদ্ধে রক্তক্ষয়ী সংগ্রামে লিপ্ত হয়েছে বেলুচরা। তবে প্রতিবারই পাকিস্তানি সেনাবাহিনী কঠোর দমন-পীড়নের মাধ্যমে বেলুচদের স্বাধীনতার আকাঙ্খাকে দমন করেছে। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801721978664

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড