• রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মাওলানা সাদের পরিবারকে নিজামুদ্দিন মারকাজের চাবি হস্তান্তর

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:২৯
মাওলানা সাদের পরিবারকে নিজামুদ্দিন মারকাজের চাবি হস্তান্তর
মারকাজের প্রধান মাওলানা সাদ কান্ধলভি (ছবি : এনডিটিভি)

দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজের পক্ষে আবেদনের ওপর দীর্ঘ শুনানি শেষে মারকাজের স্থায়ী বাসিন্দাদের জন্য আবাসিক অংশ খুলে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন ভারতীয় আদালত। আগামী পাঁচ দিনের মধ্যে মারকাজের প্রধান মাওলানা সাদ কান্ধলভির পরিবারের কাছে মারকাজের আবাসিক অংশের চাবি হস্তান্তরের জন্য দিল্লি সরকারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। গত শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) নিজামুদ্দিন মারকাজের পক্ষ থেকে আদালতে করা আবেদনের ওপর দীর্ঘ শুনানির পর এই রায় প্রদান করা হয়। খবর হিন্দুস্থান টাইমসের।

দিল্লির চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট গুরমোহিনা কৌর শুনানিতে বলেন, সংবিধানের ২১ ধারা অনুযায়ী ভারতের প্রতিটি নাগরিকই স্বাধীনভাবে তার সম্পদ ব্যবহারের অধিকার রাখে।

পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত মারকাজে কোনো সমাবেশের আয়োজন করা যাবে না উল্লেখ করে এ সময় আদালত জানিয়েছে, আদেশের পাঁচ দিনের মধ্যে মারকাজের আবাসিক অংশের চাবি মারকাজের প্রধান মাওলানা সাদ কান্ধলভির পরিবারের কাছে হস্তান্তর করতে হবে। এছাড়া যে কোনো তদন্তে মালিকপক্ষ সরকারকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করার বিষয় আবেদনকারীদেরকে নির্দেশ দেন দিল্লির আদালত।

আরও পড়ুন : আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের মতো শান্তি চায় ভারতও!

গত মার্চের মাঝামাঝিতে একটি জমায়েতকে কেন্দ্র করে তাবলিগ সদস্যরা ভারতের হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকারের রোষানলে পড়েন। অনুষ্ঠানের বিষয়টি প্রকাশিত হলে তাতে অংশ নেওয়া ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া ও বাংলাদেশসহ বিশ্বের কয়েক হাজার অনুসারীকে গ্রেফতার করে বিশ্ব তাবলিগ জামাতের সদর দফতরটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন : ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক করায় বাহরাইনকে হুমকি ফিলিস্তিনের

করোনা সংক্রান্ত নিয়মবিধি লঙ্ঘনের মতো একাধিক অভিযোগে ৪০টি দেশের ২ হাজার ৫৫০ তাবলিগ জামাত সদস্যকে কালো তালিকাভুক্ত করে নরেন্দ্র মোদীর সরকার। আগামী ১০ বছর এই নিষেধাজ্ঞা জারি থাকবে। এছাড়া তাদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয় দেশটির বিভিন্ন রাজ্যে।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড