• রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

তুরস্কের পথে সেনা পাঠাল গ্রিস, সীমান্তে উত্তেজনা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪:৩২
তুরস্কের পথে সেনা পাঠাল গ্রিস, সীমান্তে উত্তেজনা
সীমান্তে মোতায়েন গ্রিসের সেনা সদস্যরা (ছবি : ইউরো নিউজ)

ইউরোপের প্রতিবেশী রাষ্ট্র তুরস্ক ও গ্রিসের মধ্যে বিদ্যমান উত্তেজনার মাঝেই সীমান্তে সামরিক উপস্থিতি জোরদার করেছে গ্রিক সরকার। যদিও আঙ্কারা থেকে ইউরোপমুখী অভিবাসীদের ঢল ঠেকাতেই এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে এথেন্স।

গ্রিসের অভিবাসন প্রতিমন্ত্রী জর্গোস কাউমাউসাকোস প্রকাশ্যেই তার দেশের প্রত্যাশা অনুযায়ী, তুরস্কের ওপর ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) নিষেধাজ্ঞা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন।

জর্গোস কাউমাউসাকোস বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞা এড়াতে তুরস্ক চাপ প্রয়োগের কৌশল হিসেবে অভিবাসীদের ব্যবহার করতে পারে। আগামী ২৪ ও ২৫ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ইউরোপীয় কাউন্সিলের বৈঠকের শীর্ষ এজেন্ডায় রয়েছে তুরস্ক ও গ্রিসের মধ্যকার বিবাদের বিষয়টি। ফ্রান্স ও গ্রিসের মতো দেশগুলো তুরস্কের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার আরোপের জন্য সংস্থাটির ওপর চাপ প্রয়োগ করছে।

সিরিয়ার গৃহযুদ্ধের ভয়াবহতায় তুরস্কে আশ্রয় নিয়েছে লাখ লাখ শরণার্থী। এই শরণার্থীদের অনেকেই তুর্কি-গ্রিস সীমান্ত দিয়ে ইউরোপের অন্যান্য দেশে প্রবেশের চেষ্টা করে থাকে। ইইউর সাথে আঙ্কারার সমঝোতা অনুযায়ী শরণার্থীদের ইউরোপে প্রবেশ ঠেকানোর অঙ্গীকার করেছিল তুরস্ক।

আরও পড়ুন : মহানবীকে অবমাননা করায় ফরাসি ম্যাগাজিনকে অভিশাপ খামেনির

যদিও গ্রিস-তুর্কি বিবাদে ইউরোপীয় ইউনিয়ন মোটা দাগে গ্রিসের পক্ষ নেওয়ায় ওই পরিস্থিতি তুরস্কও অবস্থান পরিবর্তনের ইঙ্গিত দেয়। ফলে ইউরোপমুখী শরণার্থীদের ঢল সামাল দিতে সীমান্তে সামরিক উপস্থিতি জোরদার করেছে গ্রিস।

আরও পড়ুন : বিশ্বাসঘাতকদের শাস্তির হুঁশিয়ারি রুহানি-এরদোগানের

এ দিকে গ্রিসের সাথে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার মধ্যেই নর্দার্ন সাইপ্রাসে সামরিক মহড়া শুরু করেছে তুরস্ক। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে তাই এটি বাড়তি গুরুত্ব পাচ্ছে। গত রবিবার (৬ সেপ্টেম্বর) থেকে শুরু হওয়া মহড়া চলবে আগামী বৃহস্পতিবার (১০ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত।

আরও পড়ুন : লাঠি, বর্শা, রাইফেল দিয়ে সীমান্তে চীনা বাহিনীর আক্রমণ!

শনিবারই (৫ সেপ্টেম্বর) তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেসেপ তাইয়্যেপ এরদোগান হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছিলেন, গ্রিস হয় রাজনীতি ও কূটনীতির ভাষা বুঝবে, না হয় তাদের বেদনাদায়ক অভিজ্ঞতার মুখে পড়তে হবে। তুরস্কের জনগণ যেকোনো পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত রয়েছে।

সূত্র : আল-জাজিরা

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড