• রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

যুক্তরাষ্ট্র-ইসরায়েলের গোয়েন্দারাই বৈরুতে বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে!

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫:৫৯
যুক্তরাষ্ট্র-ইসরায়েলের গোয়েন্দারাই বৈরুতে বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে!
বিস্ফোরণে বিধ্বস্ত বৈরুত বন্দর (ছবি : রয়টার্স)

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইহুদি রাষ্ট্র ইসরায়েলের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো একত্রে বৈরুত বন্দরে বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। এমনটাই দাবি করেছেন লেবাননের রাজনৈতিক দল পিপলস মুভমেন্ট'র সভাপতি নাজাহ ওয়াকিম। রবিবার (৬ সেপ্টেম্বর) লেবাননের আল-মায়াদিন টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন।

ইরান বার্তা সংস্থা পার্সটুডে জানিয়েছে, গত মাসে বৈরুত বন্দরে ভয়াবহ বিস্ফোরণে বহু মানুষ হতাহত হন। এই বিস্ফোরণ সম্পর্কে নাজাহ ওয়াকিম বলেন, সত্য লুকাতে ৪ আগস্টের বিস্ফোরণের বিষয়ে তদন্ত চালানোর ঘোষণা দিয়েছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই।

তিনি আরও বলেন, শত্রুরা এখন সত্য লুকানোর চেষ্টায় আছে। একই ঘটনা ঘটেছে সাবেক প্রধানমন্ত্রী রফিক হারিরি হত্যাকাণ্ড ইস্যুতে। ২০০৫ সালে বৈরুতে এক বিস্ফোরণে নিহত হন সাবেক প্রধানমন্ত্রী রফিক হারিরি। জাতিসংঘের সহযোগিতায় ওই বিস্ফোরণ ও হত্যাকাণ্ডের তদন্ত হয়েছে। কিন্তু এখনো রয়ে গেছে অসংখ্য প্রশ্ন।

নাজাহ ওয়াকিমের মতে, গত ৪ আগস্টে বৈরুত বন্দরে যে ভয়াবহ বিস্ফোরণ হয়েছে তাতে ওয়াশিংটনের জড়িত থাকার বিষয়টি ভবিষ্যতে প্রমাণিত হবে।

আরও পড়ুন : উত্তর সাইপ্রাসে সামরিক মহড়া শুরু তুরস্কের

তিনি বলেছিলেন, বিস্ফোরণের পরপরই যুক্তরাষ্ট্র ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোকে বৈরুতে পাঠিয়েছিল, যাতে সেখানে রাশিয়া ও চীন কোনো ভূমিকা রাখতে না পারে।

আরও পড়ুন : জেরুজালেমে দূতাবাস স্থানান্তরকারীদের ভয়ঙ্কর হুঁশিয়ারি ফিলিস্তিনের

৪ আগস্ট বৈরুতে বিস্ফোরণের পরপরই বৈরুত সফর করেন ম্যাক্রো এবং সেখানে তিনি হস্তক্ষেপমূলক বক্তব্য দেন। এরপর গত মঙ্গলবার দ্বিতীয় দফা সফরে আসেন তিনি। এবারো তিনি লেবাননের নেতাদের হুমকি দিয়ে বলেন, সংস্কার আনুন নইলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড