• সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৬ আশ্বিন ১৪২৭  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মধ্যপ্রাচ্যে হামলা চালানোর চেয়ে ঠেকাতেই ব্যস্ত মার্কিন সেনারা! 

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১২ আগস্ট ২০২০, ১৫:০৩
মধ্যপ্রাচ্যে হামলা চালানোর চেয়ে ঠেকাতেই ব্যস্ত মার্কিন সেনারা! 
মধ্যপ্রাচ্যে মোতায়েন মার্কিন সেনা সদস্যরা (ছবি : আল-জাজিরা)

যুক্তরাষ্ট্র বরাবরই চায় মধ্যপ্রাচ্যে নিজেদের আধিপত্য বিস্তার করতে। সে জন্য অঞ্চলটিতে ব্যাপকহারে সেনা মোতায়েন করেছে দেশটি। নানান অজুহাতে মধ্যপ্রাচ্যে অভিযান চালিয়েছে মার্কিন সেনারা। তবে এখন অবস্থা পরিবর্তন হয়েছে। বিরোধীদের ওপর হামলা চালানোর চেয়ে প্রতিপক্ষের হামলা ঠেকাতেই বেশি ব্যস্ত থাকতে হচ্ছে তাদের।

গত ১১ মার্চ ইরাকে অবস্থিত মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোটের তাজি ঘাঁটিতে রকেট হামলা চালায় বিরোধীরা। এতে বেশকিছু মার্কিন ও ব্রিটিশ সেনা হতাহত হন। এই হামলার জন্য দীর্ঘদিনের শত্রু ইরানকে দায়ী করে মার্কিন প্রশাসন। এ জন্য প্রতিশোধ নিতে সিরিয়া ও ইরাকে ইরানি কমান্ডার ও যোদ্ধাদের অবস্থান লক্ষ্য করে হামলা চালায় মার্কিন বাহিনী। তবে তাতে ইরানের বড় ধরনের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

এরপর ১৪ মার্চ ইরাকের তাজি ঘাঁটিতে ফের অভিযান চালায় মার্কিন জোটের বিরোধীরা। মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মিডল ইস্ট মনিটরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এদিন মার্কিন জোটের তাজি ঘাঁটিতে ৩৩টি রকেট নিক্ষেপ হয়েছে। তাও আবার দিনের বেলাতেই।

আরও পড়ুন : যেভাবে রুশ যুদ্ধবিমানের ধাওয়া খেয়ে পালাল মার্কিন বোমারু বিমান

পেন্টাগন জানিয়েছে, ভয়াবহ সেই রকেট হামলায় মার্কিন জোটের তিন সেনা আহত হয়েছেন। তাদের অবস্থা বেশ আশঙ্কাজনক।

এছাড়া এই রকেট হামলার জেরে মধ্যপ্রাচ্যে মোতায়েন মার্কিন জোটের সেনাদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে বলে জানিয়েছে মিডল ইস্ট আই। তাছাড়া সেনাদের মনে এ ধরনের ভয়ংকর রকেট হামলার নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা।

আরও পড়ুন : বিস্ফোরণে বিধ্বস্ত লেবাননকে যুদ্ধের হুঁশিয়ারি দিল ইসরায়েল

এর আগে গত ৩ জানুয়ারি ইরাকের বাগদাদে মার্কিন সেনাদের ড্রোন হামলায় নিহত হন ইরানের সর্বোচ্চ সামরিক কর্মকর্তা জেনারেল কাসেম সোলাইমানি। এর প্রতিশোধ নিতে ৮ জানুয়ারি ইরাকে অবস্থিত মার্কিন ঘাঁটি আইন আল-আসাদে টানা দুই ঘণ্টা ধরে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইরান। এতে শতাধিক মার্কিন সেনা আহত হন।

আরও পড়ুন : ইসরায়েলের সেনাবাহিনীতে বাড়ছে নারী সদস্যের সংখ্যা

এসব কারণে বিশ্লেষকদের অভিমত, মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন সেনারা এখন অনেকটাই কোণঠাসা হয়ে পড়েছেন। সেখানে তাদের আধিপত্য একেবারেই হ্রাস পেয়েছে। এখন মার্কিন সেনাদের উচিত দ্রুত দেশে ফিরে যাওয়া।

আরও পড়ুন : অত্যাধুনিক ট্যাংকবাহী যান নির্মাণ করছে ইরান

এ দিকে নিজেদের অসহায়ত্বের কথা স্বীকার করেছেন মার্কিন সেনারাও। শনিবারের রকেট হামলার পর তারা বলেছেন, গত কয়েকদিন ধরে উত্তর ইরাকের আবহাওয়া বেশ মেঘাচ্ছন্ন। ফলে মার্কিন জোটের নজরদারি ব্যবস্থা অনেকটাই বিকল হয়ে পড়েছে। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে হামলা চালাতে পেরেছে বিরোধীরা।

আরও পড়ুন : তুরস্কের ড্রোন হামলায় ইরাকের দুই সামরিক কর্মকর্তা নিহত

বিষয়টি উপলব্ধি করে পেন্টাগন বলেছে, ইরান সমর্থিত যোদ্ধারা মার্কিন সেনাদের পিছু লেগেছে। এর কঠিন জবাব দেওয়া হবে। তবে মার্কিন সেনাদের হামলা হবে আত্মরক্ষামূলক।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড