• বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

চতুর চীন, নেপালকে পাশে টানার ক্ষমতা নেই ভারতের

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৩ জুলাই ২০২০, ২২:০৭
শি জিনপিং- কেপি ওলি

কূটনৈতিক দিক বিবেচনায় চীনের চেয়ে দাপটশালী বর্তমান বিশ্বে ভার। প্রতিবেশী দেশগুলোকে হাতের মুঠোয় নিয়ে ভারতকে নাস্তানাবুদ করছে চীন। নেপালের সাথে ভারতের অতীত ইতিহাস ভালো হলেও বর্তমানে সীমান্ত নিয়ে ক্ষোভে ফুঁসছে ছোট এই দেশটি। ভারতের জন্য এটি একটি অশনি সংকেতও বটে। ভারত চেয়েছিল নেপালের সাথে সম্পর্ক ঠিক করার, কিন্তু এত সহজেই সম্ভব হবে না বলেই মনে করছে বিশেষজ্ঞরা।

ভারতের, লাদাখ, অরুণাচল, ছাড়াও ভুটানের সাকতেং, ইন্দোনেশিয়ার দ্বীপ নটুনার দিকে সাম্র্রাজ্য বিস্তারের চেষ্টায় রয়েছে চীন। এদিকে নেপালে চীনের একটা বড় অংশের বিনিয়োগ রয়েছে। গ্লোবাল ওয়াচ অ্যানালাইসিস দাবি করছে, এই বিনিয়োগের আর্থিক অংক এতটাই বেশি, যা নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলির এড়িয়েও যেতে পারছে না।

নেপালের মতো ছোট দেশে একাধিক চৈনিক সংস্থাকে দিয়ে বিনিয়োগ করিয়েছে চীন। যার ফলে বেজিংয়ের কাছে অনেকটাই নতজানু হয়েই আছে কাঠমান্ডু। নেপালের চীন পন্থি প্রধানমন্ত্রীকে রাজনৈতিক পরামর্শও দিচ্ছে বেইজিং। বলা হয়, নেপালের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলিকে এক পাশে রেখে এই মুহূর্তে নেপালের রাজনীতির অন্যতম দরজা খোলা শুরু করেছেন সেদেশে আগত চীনের নতুন দূত। যার কারণে রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক পাকাপোক্ত সম্পর্কের সৃষ্টি হয়েছে চীন-নেপালের মধ্যে।

বিশেষজ্ঞদের দাবি,এহেন পরিস্থিতে ভারত চাইলেই নেপালের সাথে সুসম্পর্ক গড়তে পারছে না। তাছাড়া, পূর্বে ভারত কূটনৈতিকভাবে নেপালকে কম গুরুত্ব দেওয়ার সুযোগ নিয়েছে চীন।

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড