• রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭  |   ২১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

প্যাংগংয়ে এখনো রয়েছে চীনের সেনা, উদ্বিগ্ন ভারত

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১২ জুলাই ২০২০, ১১:১৭
প্যাংগংয়ে এখনো রয়েছে চীনের সেনা, উদ্বিগ্ন ভারত
চীনের সেনাবাহিনী (ছবি : প্রতীকী)

প্যাংগং হৃদ থেকে এখনো সব সেনা সরিয়ে নেয়নি চীন। লাদাখের ফিঙ্গার-৪ এলাকা থেকে কিছু সেনা সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। প্যাংগং হ্রদ থেকে তাদের কিছু নৌকাও সরে গেছে। তবে প্যাংগং এলাকায় এখনো চীনা সেনাদের আংশিক উপস্থিতি রয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী সূত্র।

গালওয়ান উপত্যকায় দু’পক্ষ যে শর্তে সেনাদের পিছিয়ে নিয়েছে তাতে এক কিলোমিটার অঞ্চল চীনের দখলে চলে গেছে বলে অভিযোগ করেছে ভারত।

ভারত চায় চীন ফিঙ্গার-৮ থেকে তাদের ছাউনিতে ফিরে যাক। এমনকি সিরিজাপ ১ ও ২ থেকেও তাদের পাকা ঘাঁটিতে চলে যাক। কিন্তু চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি ফিঙ্গার-২ পর্যন্ত দখল নিতে চায়।

ফিংগার রিজিয়নের আটটি ফিংগার ভারতের অন্তর্গত বলে বরাবরই দাবি করে এসেছে নয়াদিল্লি। এই আট ফিংগার যেখানে শেষ হচ্ছে সেখানেই ভারত-চীন সীমান্তের নিয়ন্ত্রণ রেখা। তবে এ বিষয়ে চিনের দাবি কিছুটা আলাদা।

চীন বলছে, চার নম্বর ফিংগার পর্যন্ত ভারতের এলাকা এবং বাকি চারটি ফিংগার চীন সীমান্তের মধ্যে পড়েছে। চলতি বছরের মে মাসে আট নম্বর ফিংগারের দিকে টহল দিতে যাওয়ার পথে ভারতীয় বাহিনীর পথ আটকেছিল চীনা সেনারা।

এর আগে স্যাটেলাইট চিত্রে ফিংগার-৪ অঞ্চলে চীনের বিভিন্ন নির্মাণকাজের ছবি ধরা পড়েছিল। উল্লেখ্য, লাদাখে প্যাংগং লেকের ধারে আটটি পরপর সরু অঞ্চল রয়েছে। এর মধ্যে ফিংগার ৪ অঞ্চলে চীনা আগ্রাসন রুখতে গিয়ে চীনের সঙ্গে সংঘাতে কমপক্ষে ২০ জন ভারতীয় সেনা নিহত হয়।

এখন পর্যন্ত দুই দেশের কমান্ডার পর্যায়ে তিনটি বৈঠক হয়েছে। গালওয়ান, হটস্প্রিং এবং গোগরা থেকে চীনা সেনারা সরে গেছে।

আরও পড়ুন : প্যাংগং লেক থেকে সাময়িক পিছু হটল চীন

ভারতীয় সেনাবাহিনী বলছে, প্যাংগংয়ের মোট ৮টি ‘ফিঙ্গার’ এলাকা রয়েছে। এর মধ্যে ফিঙ্গার-৪-এ চীনা সেনাদের উপস্থিতি কমে এসেছে ঠিকই। কিন্তু এখনো ফিঙ্গার এলাকায় চীনা সেনারই আধিপত্য রয়েছে। একাধিক ঝর্নার কাছে চীনের তাঁবু এখন পর্যন্ত রয়েছে।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড