• সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ২২ আষাঢ় ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রকেট হামলায় আফগানিস্তানে শিশুসহ নিহত ২৩

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

৩০ জুন ২০২০, ০১:২৭
রকেট হামলা
রকেট হামলা (ছবি : সংগৃহীত)

আফগানিস্তানের দক্ষিণাঞ্চলে অবস্থিত হেলমান্দ প্রদেশের একটি গবাদি পশুর বাজারে রকেট বিস্ফোরণের ঘটনায় অন্তত ২৩ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। দেশটির সরকারি কর্মকর্তা এবং সশস্ত্র বিদ্রোহী গোষ্ঠী আফগান তালেবানের কর্মকর্তারা এই খবর নিশ্চিত করেছেন।

এ প্রসঙ্গে আল-জাজিরার প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, দেশটিতে যুদ্ধরত দুই পক্ষই হেলমান্দ প্রদেশের সাঙ্গিন জেলার সাপ্তাহিক ওই গবাদি পশুর হাটে সোমবারের (২৯ জুন) হামলার জন্য একে অপরকে দোষারোপ করেছে। জেলার বিভিন্ন গ্রামের মানুষ খোলা আকাশের নিচের ওই বাজারে ভেড়া ও ছাগল কেনাবেচা করতে আসেন।

হেলমান্দ প্রদেশের গভর্নরের একজন মুখপাত্র বলেন, তালেবান যোদ্ধা রকেট ছোড়েন, যা বাজারটির পাশেই বিস্ফোরিত হয়। হামলায় শিশুসহ ২৩ জন নিহত হন। এছাড়া আরও অনেকেই হতাহত হয়েছেন। রবিবার (২৮ জুন) একই প্রদেশের ওয়াশার জেলার সড়কে গাড়ি বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় নিহত হন ৬ বেসামরিক নাগরিক।

সোমবার রকেট হামলা করে বেসামরিক নাগরিক হত্যার জন্য দেশটির সরকারকে দায়ী করছে আফগান তালেবান কর্মকর্তারা। তালেবানের মুখপাত্র ক্বারী ইউসুফ আহমাদি বলেন, ‌‘আফগান সেনারা মানুষের বাড়িঘর ও গবাদি পশুর বাজারের ওপর কয়েক রাউন্ড মর্টার বোমা ছুড়েছে। এতেই প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে।’

এ দিকে, হেলমান্দ প্রদেশের কয়েকজন স্থানীয় বাসিন্দা ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, বাজারটির আশেপাশের এলাকায় তালেবান জঙ্গিদের সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর তুমুল সংঘর্ষ চলার সময়ই এই রকেট এসে পড়েছে।

আরও পড়ুন : ফ্রান্সের সাবেক প্রধানমন্ত্রীর কারাদণ্ড 

আফগানিস্তানে জাতিসংঘ মিশন থেকে দেওয়া হিসাবে বলা হচ্ছে, গত এপ্রিলে দেশটিতে তালেবানের বিভিন্ন হামলা-বিস্ফোরণে ২০৮ জন এবং দেশটির সরকারি নিরাপত্তা বাহিনীর হামলা-বিস্ফোরণে ১৭২ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে। লড়াই বন্ধ করে দুই পক্ষকে আলোচনায় বসার আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড