• রোববার, ০৫ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ট্রাম্পকে চিনের খোঁচা, তাল মেলাচ্ছে ইরান

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০১ জুন ২০২০, ২২:২৩
ট্রাম্প

একজন কৃষ্ণাঙ্গের হত্যাকাণ্ড নিয়ে বিক্ষোভের আগুন  জ্বলছে আমেরিকায়। আগুনের তেজ বেড়ে এখন তা ছড়িয়ে পড়েছে ইউরোপেও। আর এই সুযোগ বুঝে মাঠে নেমে পড়েছে চিন। তাদের কথায়, মার্কিন সমাজে বর্ণবৈষম্য এবং পুলিশি নৃশংসতা চেপে বসেছে। 

চেক জালিয়াতির অভিযোগে গত সপ্তাহে মিনিয়াপলিসে জর্জ ফ্লয়েড নামের এক কৃষ্ণাঙ্গকে নৃশংস ভাবে খুন করে সেখানকার পুলিশ। সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে সেই ভিডিও সামনে আসতেই বিক্ষোভ শুরু হয় দেশ জুড়ে। গত কয়েক দিনে দেশের বিভিন্ন জায়গায় তা হিংসাত্মক আকারও ধারণ করেছে।

শুক্রবার হোয়াইট হাউসের কাছাকাছি এলাকায় বিক্ষোভ চলাকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজেকে রক্ষায় আন্ডারগ্রাউন্ড বাঙ্কারে লুকিয়ে যান। সেই খবর সামনে আসতেই মুচকি হাসি হাসছে চিন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে তীব্র কটাক্ষ করেছে তারা। সোমবার বেইজিংয়ে সাংবাদিক বৈঠক চলাকালীন চিনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লিজিয়ান ঝাও বলেন, মার্কিন সমাজে বর্ণবৈষম্য এবং পুলিশি নৃশংসতা কতটা গভীর ভাবে চলে গেছে, জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুই তা দেখিয়ে দিল। শুধুমাত্র লিজিয়ান ঝাওই নন, জর্জ ফ্লয়েডের শেষ বাক্য উদ্ধৃত করে গত কাল টুইট করেন চিনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আরেক মুখপাত্র হুয়া চুনিংও। ।  

চিনা রাষ্ট্রীয় সংবাদপত্র গ্লোবাল টাইমস এর সম্পাদক হু শিজিনও টুইটে উল্লেখ করেন, 'মার্কিন হাউস স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি হংকংয়ের হিংসাত্মক বিক্ষোভে দেখে বলেছিলে অসাধারণ দৃশ্য। আশা করি এ বার বাড়ির জানলা থেকে একই ধরনের দৃশ্য উপভোগ করছেন মার্কিন রাজনীতিকরা।' এছাড়া তিনি বলেন, 'মিস্টার প্রেসিডেন্ট, সিক্রেট সার্ভিসের পিছনে লুকোবেন না।  তার চেয়ে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে কথা বলুন।' 

তবে শুধু চিন বা রাশিয়াই নয়, জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর ঘটনায় মার্কিন সরকারের সমালোচনায় সরব হয়েছে ইরানও। ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রী মুহাম্মদ জরিফ টুইটে লিখেন,  'কেউ কেউ ভাবেন কৃষ্ণাঙ্গদের জীবনের কোনও মূল্য নেই'। বর্ণবৈষম্যের বিরুদ্ধে গোটা বিশ্বের একজোট হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন তিনি।
 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড