• বুধবার, ০৮ জুলাই ২০২০, ২৪ আষাঢ় ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভারতের বিরোধিতা সত্ত্বেও নেপাল সংসদে নতুন 'মানচিত্র বিল' পেশ

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

৩১ মে ২০২০, ১৬:৪৩
করোনা
ছবি : সংগৃহীত

কয়দিন আগেই বিতর্কিত ভূখণ্ড কালাপানি আর লিপুলেখকে নিজেদের মানচিত্রে অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল নেপাল সরকার। এবার ভারতের তীব্র বিরোধিতা সত্ত্বেও বিতর্কিত সেই নতুন 'মানচিত্র বিল' পেশ করা হয়েছে নেপাল সংসদে।

দু’দেশের মধ্যে সঙ্ঘাতের আবহেই রবিবারই নেপালের সংসদে পেশ করা হয়েছে ‘ম্যাপ আপডেট বিল’। নতুন এই ম্যাপে ভারত-নেপাল সীমান্তের বিতর্কিত ভূখণ্ড লিম্পিয়াধুরা, কালাপানি ও লিপুলেখকে নেপালের অংশ বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

কূটনৈতিক সূত্রের তথ্য মতে, জাতীয়তাবাদের প্রশ্নে বিরোধীরাও এই বিলে সমর্থনের বার্তা দিয়েছে। ফলে বিল পাশ হয়ে যাওয়া এখন কার্যত সময়ের অপেক্ষা। আর সেটা হলে অবধারিত ভাবেই নয়াদিল্লি-কাঠামান্ডু সঙ্ঘাত আরো তীব্র হবে বলেই মনে করছেন কূটনৈতিকদের একাংশ।

বিল পেশ হওয়ার কথা ছিল বুধবার। কিন্তু সংবিধান সংশোধনী বিলে দুই তৃতীয়াংশ সাংসদের সমর্থন দরকার হয়। তাই সব দিক বিবেচনায় এগোতে চাইছিল কেপি শর্মা ওলি সরকার। সেই কারণেই বিল পেশের সময় পিছিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু শনিবার নিজেদের মধ্যে বৈঠকে নেপালের প্রধান বিরোধী দল নেপালি কংগ্রেসের কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে এই নতুন মানচিত্র বিলকে সমর্থন জানানোর ঘোসণা দেয়। তার পরেই রবিবার সংসদের নিম্নকক্ষ ‘হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভস’-এ এই বিল পেশ করেছেন নেপালের আইনমন্ত্রী শিব মায়া তুম্বাহাম্ফি।

নেপালি কংগ্রেসের সমর্থন পাওয়ায় ‘সমাজবাদী জনতা পার্টি নেপাল’ এবং ‘রাষ্ট্রীয় জনতা পার্টি নেপাল’-এর বিরোধিতা সত্ত্বেও বিল পাশ করাতে কেপি শর্মা ওলির কোনো সমস্যা হবে না বলেই মনে করছেন আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশ্লেষকরা। একই ভাবে নেপালের সংসদের উচ্চকক্ষ ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতেও পাশ হয়ে যাবে এই ম্যাপ আপডেট বিল।

লিম্পিয়াধুরা, কালাপানি ও লিপুলেখ নিয়ে ভারত-নেপাল বিবাদ দীর্ঘদিনের। ভারতের দাবি, এই তিনটিই ভারতের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ এবং উত্তরখণ্ড রাজ্যের পিথোরাগড় জেলার অন্তর্ভূক্ত। উল্টোদিকে নেপালেরও দাবি এগুলো তাদের ভূখণ্ড।

উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেই হিমালয়ের মানস সরোবর পর্যন্ত তীর্থযাত্রা আরো সুগম করতে ভারতের তৈরি নতুন সড়ক নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে নেপাল। উত্তরাখণ্ড থেকে লিপুলেখ পাস পর্যন্ত ৮০ কিলোমিটার লম্বা এই রাস্তা নিয়ে আপত্তি জানায় নেপাল। সূত্র- এএনআই। 

ওডি/ 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড