• মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

টিকা ছাড়াই করোনাকে হার মানাবে চীনা ওষুধ!

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২০ মে ২০২০, ১৪:৩১
ওষুধ
টিকা ছাড়াই করোনাকে হার মানাবে চীনা ওষুধ! (প্রতীকী ছবি)

সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে মহামারি হয়ে গর্জে ওঠা করোনা ভাইরাসের চিকিৎসায় নতুন ওষুধ উদ্ভাবন করেছেন চীনের বিজ্ঞানীরা। তারা দাবি করেছেন, টিকা ছাড়াই করোনা মহামারিকে রুখে দেবে এই ওষুধ। এরই মধ্যে প্রাণীর ওপর সফল পরীক্ষা চালানো এই ওষুধ নিয়ে চীনের পেকিং ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞানীরা বলেন, এই ওষুধ খেয়ে কোভিড-১৯ রোগীরা অল্প সময়ে সুস্থ হয় উঠবেন। এমনকি সুস্থ হওয়ার পর কিছুদিনের জন্য করোনা ভাইরাস তাদের নতুন করে আক্রান্ত করতে পারবে না। তাদের মধ্যে সুরক্ষা তৈরি হবে।

ওষুধটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ভাইরাস নিষ্ক্রিয়করণ অ্যান্টিবডি। করোনায় আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হওয়া ৬০ জন রোগীর রক্ত থেকে এ অ্যান্টিবডি সংগ্রহ করা হয়। এসব রোগী যখন করোনায় আক্রান্ত হন তখন তাদের দেহের কোষগুলোকে সুস্থ করার জন্য শরীরে এ অ্যান্টিবডি তৈরি হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বেইজিং অ্যাডভান্সড উদ্ভাবন সেন্টারের পরিচালক সান্নে ঝি বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, ‘প্রাণীর ওপর পরীক্ষায় ওষুধটি সফলতা দেখিয়েছে। আমরা যখন একটি ইঁদুরকে ভাইরাস নিষ্ক্রিয়করণ এ অ্যান্টিবডি প্রয়োগ করি, পাঁচ দিনের মাথায় তার অসুস্থতা অনেকটাই কমে যায়।’ গত রবিবার সায়েন্টিফিক জার্নাল সেল ম্যাগাজিনে প্রকাশিত ওই গবেষণা প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, করোনা থেকে সুস্থতায় এটি একটি সম্ভাব্য অ্যান্টিবডি, এতে সুস্থতার সময়ও অনেক কমে আসে।

আরও পড়ুন : ব্রাজিলে ঝড়ের গতিতে আক্রান্ত ও মৃত্যুর রেকর্ড

সান্নে ঝি বলেন, ‘এ বছরের শেষ নাগাদ ওষুধটি ব্যবহারের জন্য প্রস্তুত করা সম্ভব হবে। এরই মধ্যে মানুষের ওপর ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা-নিরীক্ষার কাজ চলছে। অস্ট্রেলিয়াসহ অন্যান্য দেশেও আমরা এর পরীক্ষা চালাব।’

এর আগে গত সপ্তাহে দেশটির একজন স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জানান, করোনার জন্য এরই মধ্যে পাঁচটি টিকা চীনে মানুষের ওপর পরীক্ষার পর্যায়ে আছে।

তথ্যসূত্র : এএফপি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড