• সোমবার, ১৩ জুলাই ২০২০, ২৯ আষাঢ় ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মাহাথিরকেই ফের ক্ষমতায় চায় জনগণ!

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০:২০
মাহাথিরকেই ফের ক্ষমতায় চায় জনগণ
মালয়েশিয়ার অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ (ছবি : দ্য স্টার)

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সদ্য পদত্যাগ করা মাহাথির মোহাম্মদকে নিয়ে এবার দেশ-বিদেশে বিস্তর আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়েছে। বর্ষীয়ান এই রাজনীতিবিদকেই ফের ক্ষমতায় দেখতে চান সেখানকার অধিকাংশ মানুষ। 

সাউথ চীনা মর্নিং পোস্ট ও দ্য স্টার অনলাইনের একাধিক প্রতিবেদনে বলা হয়, আনোয়ার ইব্রাহিমের সঙ্গে কোনো ধরনের চুক্তি ছাড়াই মাহাথিরকে ফের ক্ষমতায় ফেরানোর প্রচেষ্টা চলছে। কেননা মালয়েশিয়ার জনগণ একচেটিয়াভাবে প্রবীণ এই রাজনীতিবিদের পক্ষে রয়েছে।

বিশ্লেষকদের মতে, মাহাথিরের আগের আমলে সমকামিতার অভিযোগে কারাগারে থাকা আনোয়ার ইব্রাহিমকে প্রধানমন্ত্রী করার প্রতিশ্রুত দিয়ে মূলত ক্ষমতায় ফিরেন দেশটির কিংবদন্তি নেতা। যদিও এতদিন পরও ক্ষমতা হস্তান্তরের কোনো নাম নেননি তিনি। যার প্রেক্ষিতে আনোয়ার গত কয়েক মাসে মাহাথিরের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে একাধিক বৈঠক করেছেন।

এমন উত্তেজনাকর পরিস্থিতিতে মাহাথিরের সমর্থকরা আনোয়ারকে বাদ দিয়েই দেশে নতুন জোট গড়ার পায়তারা শুরু করেন। এরই মধ্যে গত সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে আচমকা পদত্যাগ করে বসেন মাহাথির। পরে সন্ধ্যা নাগাদ সরকারের মুখ্য সচিব দাতুক সেরি মোহাম্মদ জুকি আলী বিবৃতি দিয়ে জানান, মাহাথিরকেই দেশের অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

ইউনিভার্সিটি অব নটিংহাম মালয়েশিয়া’স রিসার্চ ইনস্টিটিউটের গবেষক ব্রিজেট ওয়েলশ মনে করেন, জনগণের সমর্থন বেশি থাকায় মালয়েশিয়ার রাজা মাহাথিরকেই ক্ষমতায় রেখে দিতে চাইছেন। মূলত আনোয়ারকে ক্ষমতাহীন করার প্রধান কৌশল এটি।

বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ মাহাথির মূলত ‘ইউনাইটেড মালয়িস ন্যাশনাল অর্গানাইজেশন’ দলের একজন সাবেক জ্যেষ্ঠ নেতা। দীর্ঘ ২২ বছর ক্ষমতায় থাকার পর ২০০৩ সালে তিনি সরে দাঁড়ান। 

লম্বা সময় বিরতি নেওয়ার পর বছর দুই আগে আবারও রাজনীতিতে ফিরে আসেন তিনি। তখন যোগ দেন কারাবন্দি আনোয়ারের পাকাতান হারাপান কোয়ালিশন দলে। ২০১৮ সালের নির্বাচনে জয় লাভের পর পাকাতান হারাপান জোটের প্রধান হিসেবে সে বছরের ১০ মে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন মাহাথির মোহাম্মদ। 

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন যাবত ক্ষমতাসীন পাকাতান হারাপান জোটের নেতারা দফায় দফায় বৈঠক করায় জোট ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। তাই বিরোধী দল ‘উমনো অ্যান্ড পার্টি ইসলাম সে-মালয়েশিয়া’-এর (পিএএস) নেতৃত্বে শিগগিরই দেশটিতে নতুন সরকার আসতে পারে বলেও ধারণা করছেন অনেকে।

আরও পড়ুন : ফের প্রধানমন্ত্রী হলেন মাহাথির

মূলত এসব কারণেই মাহাথির মোহাম্মদ পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে দাবি দেশটির রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড