• মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রাশিয়ার হাতে অবিস্ফোরিত মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র, সংকটে যুক্তরাষ্ট্র

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৮:০০
যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়া
মার্কিন টমাহক ক্ষেপণাস্ত্র, (ছবি : সংগৃহীত)

সিরিয়ায় বেশ কিছুদিন আগে অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু ত্রুটির কারণে দুটি ক্ষেপণাস্ত্রের বিস্ফোরণ ঘটেনি। সিরিয়া থেকে অবিস্ফোরিত ওই দুটি মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র সংগ্রহ করে রাশিয়া। এতে সংকটে পড়েছে মার্কিন প্রশাসন।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ম্যাগাজিন দ্য ন্যাশনাল ইন্টারেস্ট জানায়, সিরিয়া থেকে অবিস্ফোরিত দুটি টমাহক ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে যায় রাশিয়া। সেগুলো গবেষণাগারে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বিভিন্ন তথ্য উদ্ঘাটন করতে সক্ষম হয়েছে তারা। এতে চরম সংকটে পড়েছে মার্কিন প্রশাসন।

যুক্তরাষ্ট্রের অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র টমাহক রাশিয়ার হাতে যাওয়ায় এটি তৈরির খুঁটিনাটি সব তথ্য পেয়ে গেছে মস্কো। এমনকি মার্কিন এই ক্ষেপণাস্ত্রকে কীভাবে আগেই চিহ্নিত করা যাবে এবং প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার মাধ্যমে রুখে দেওয়া যাবে সেটিও বুঝে গেছে রুশ কর্তৃপক্ষ। ফলে রাশিয়ার বিরুদ্ধে মার্কিন এই ক্ষেপণাস্ত্রের আর কোনো কার্যকারিতা থাকল না।

আরও পড়ুন : ইরানে হামলা চালাতে সর্বোচ্চ শক্তি নিয়ে নামছে ইসরায়েল!

এ সম্পর্কে রাশিয়ার সমরাস্ত্র বিশেষজ্ঞ ভ্লাদিমির মিখেভ বলেন, ক্ষেপণাস্ত্রগুলো হাতে পাওয়ার পর আমরা পরিষ্কারভাবে বুঝতে পেরেছি- এসব ক্ষেপণাস্ত্র কীভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হয়, কী ধরনের যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয় এবং কতদূরে এটি আঘাত হানতে সক্ষম। এছাড়া আরও অনেক তথ্য উদ্ঘাটন করতে পেরেছি। ফলে মার্কিন এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংসে আরও কার্যকরী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা তৈরি করতে সক্ষম হব আমরা।

কেউ কেউ বলছে, টমাহক ক্ষেপণাস্ত্র দুটি রাশিয়ার হাতে পড়ায় মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র কার্যক্রমের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য ফাঁস হয়ে গেছে। এটি যুক্তরাষ্ট্রকে ফেলেছে চরম সংকটে। কারণ, রাশিয়া এখন এই তথ্য অনুযায়ীই প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা তৈরি করবে।

ওডি/ডিএইচ

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড