• শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৮ ফাল্গুন ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ইরানের হামলা একবার, আহতের সংখ্যা বাড়ছে বহুবার

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১:৪৬
ইরানের হামলা একবার, আহতের সংখ্যা বাড়ছে বহুবার
আহত মার্কিন সেনাকে উদ্ধার করা হচ্ছে (ছবি : প্রতীকী)

জেনারেল কাসেম সোলাইমানি হত্যার প্রতিশোধ হিসেবে ইরাকের পৃথক মার্কিন ঘাঁটিতে ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলার ঘটনায় একের পর এক আহত সেনার সংখ্যা বাড়িয়েই যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। মস্তিষ্কে আঘাতজনিত কারণে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত মার্কিন সামরিক সদস্যদের সংখ্যা বেড়ে ১০৯ জনে পৌঁছেছে। 

সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারি) মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগনের পক্ষ থেকে পাঠানো বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানায়, এবার নিয়ে টানা পঞ্চমবারের মতো ইরানি হামলায় মানসিক বিপর্যস্ত সেনাদের সংখ্যা বাড়াল পেন্টাগন। শুরুতে ‌১১ জন দিয়ে এ সংখ্যা ঘোষণা শুরু হয়েছিল। পরে পেন্টাগনের পক্ষ থেকে মানসিক বিপর্যস্ত সেনা সদস্যের সংখ্যা বাড়িয়ে যথাক্রমে ৩৪, ৫০ এবং ৬৪ জনের কথা নিশ্চিত করা হয়। এবার সংখ্যাটি এক লাফে ১০৯ জনে পৌঁছেছে। 

যদিও প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প দাবি করেছিলেন, ইরানি ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে যুক্তরাষ্ট্রের কোনো সেনা সদস্য হতাহত হননি।

তখন পেন্টাগনের বরাতে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি নিউজ জানিয়েছিল, ভয়াবহ সেই হামলার পরপরই প্রায় ৭০ শতাংশ সেনা সদস্য তাদের দায়িত্বে ফিরে গেছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করে মার্কিন রিপাবলিকান আইনপ্রণেতা জনি আর্নস্ট বলেছিলেন, আমি শুনেছি তাদের মাথা ব্যাথাসহ অন্য আরও কিছু উপসর্গ রয়েছে। তবে আমি জানাতে চাই যে, এটা খুব জটিল কিছু নয়।

এর আগে ৩ জানুয়ারি ভোরে ইরাকের বাগদাদ শহরের বিমানবন্দরে মার্কিন বিমান হামলায় ইরানি জেনারেল কাসেম সোলাইমানি নিহত হন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নির্দেশে চালানো সেই অভিযানে তেহরান সমর্থিত পপুলার মবিলাইজেশন ফোর্সেসের (পিএমএফ) উপপ্রধান আবু মাহদি আল-মুহান্দিসসহ বাহিনীর বেশ কয়েকজন সদস্য প্রাণ হারান।

সোলাইমানি হত্যার প্রতিশোধ হিসেবে গত ৮ জানুয়ারি ভোররাতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইরান। হামলাটির পরপরই তেহরান দাবি করে, এবার ৮০ জন মার্কিন সেনা নিহত হয়েছেন। তবে যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে কোনো সেনা হতাহত হয়নি বলে তাৎক্ষণিকভাবে জানানো হয়। 

এরপর ধারণা করা হচ্ছিল, ইরানের বিরুদ্ধে কঠিন কোনো পদক্ষেপই হয়তো নেবেন ট্রাম্প। যদিও বাস্তবে তা ঘটেনি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ইরানকে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছেন।

আরও পড়ুন : সিরিয়ায় তুরস্কের পাল্টা আক্রমণ শুরু (ভিডিও)

উল্লেখ্য, আলোচনার প্রস্তাব দেওয়ার পরও যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে এখনো উত্তেজনা বিরাজ করছে।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড