• শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৬  |   ২০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনা

নেতানিয়াহুর সঙ্গে সৌদি যুবরাজের আকস্মিক বৈঠক

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৯:২৬
নেতানিয়াহুর সঙ্গে সৌদি যুবরাজের আকস্মিক বৈঠক
ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু ও সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান (ছবি : জেরুজালেম পোস্ট)

মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কথিত ‘ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি’ বা শতাব্দীর সেরা চুক্তিকে প্রত্যাখ্যান করেছে ফিলিস্তিন। এমন প্রেক্ষাপটে দখলদার রাষ্ট্র ইসরায়েলের যুদ্ধবাজ প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে আকস্মিক বৈঠকে বসতে যাচ্ছেন সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। 

সৌদি আরবের কয়েকটি কূটনৈতিক সূত্রের বরাতে মিডল ইস্ট মনিটর জানিয়েছে, দ্রুতই মিশরের রাজধানী কায়রোতে ইহুদিবাদী রাষ্ট্রটির প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনাসহ বেশ কয়েকটি বিষয় নিয়ে বৈঠক করতে পারেন সৌদি যুবরাজ।

ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যম ইসরায়েল হায়ম জানায়, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এবং তার কয়েকজন সহকারী দীর্ঘ এক বছর যাবত নেতানিয়াহুর সঙ্গে যুবরাজ সালমানের মধ্যস্থতা করে চলেছেন। যার ধারাবাহিকতায় ইসরায়েলের আসন্ন পার্লামেন্ট নির্বাচনের আগেই ওয়াশিংটন, তেল আবিব, কায়রো এবং রিয়াদের মধ্যে শীর্ষ বৈঠকটি অনুষ্ঠিতের কথা রয়েছে।

যেখানে অংশ নিতে পারেন সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান, বাহরাইন এবং সুদানের প্রতিনিধিরা।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, সম্মেলনটি বাহরাইনের রাজধানী মানামায় আয়োজনের জন্য প্রথমে দেশটির পক্ষ থেকে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। কেননা মার্কিন প্রেসিডেন্টের ‘ডিল অব দ্যা সেঞ্চুরি’ নিয়ে কর্মশালাটি এখান থেকেই শুরু হয়েছিল।

তখন জর্ডানের রাজা দ্বিতীয় আবদুল্লাহকে কর্মশালাতে আমন্ত্রণ জানানো হলেও ফিলিস্তিন প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসকে দাওয়াত না দেওয়ায় তিনি সেখানে অংশ নিতে অস্বীকার জানান।

বিশ্লেষকদের মতে, এমন সময় সৌদি যুবরাজের সঙ্গে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকের বিষয়টি প্রকাশ্যে আসলো যখন ‘শতাব্দীর সেরা চুক্তি’ নামে মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনাকে অনেকটাই এগিয়ে নিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। এর মাধ্যমে ফিলিস্তিনের ভূখণ্ডে অবৈধভাবে ইহুদিবাদী ইসরায়েল নামক একটি কৃত্রিম রাষ্ট্র গঠন করা হয়েছে।

গত ২৮ জানুয়ারি ‘ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি’ বা শতাব্দীর সেরা চুক্তি নামে মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনা ঘোষণা করেছিলেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেখানে ফিলিস্তিনের ঐতিহাসিক জেরুজালেম শহরকে ইসরায়েলি ভূখণ্ড হিসেবে উল্লেখ করা হয়। তাছাড়া কেন্দ্রীয় শহর জেরুজালেমের বাইরের আবু দিস নামে ছোট একটি গ্রামকে ভবিষ্যৎ ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের রাজধানী হিসেবে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল।

আরও পড়ুন : স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের ভিডিও ছাড়ল ইরান

উল্লেখ্য, ট্রাম্পের সেই পরিকল্পনায় জর্ডান নদীর পশ্চিম তীরের অংশবিশেষ ও গাজা উপত্যকা নিয়ে নামমাত্র একটি ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গঠনের কথা বলা হয়েছে। যে রাষ্ট্রের নিজস্ব কোনো সামরিক বাহিনী থাকবে না।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড