• মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা 

যে কারণে সেনা আহতের খবর গোপন করে যুক্তরাষ্ট্র

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৮ জানুয়ারি ২০২০, ০৯:২১
ইরান-যুক্তরাষ্ট্র
ইরানের হামলায় বিধ্বস্ত মার্কিন ঘাঁটি, (ছবি : সংগৃহীত)

সোলাইমানি হত্যার প্রতিশোধ হিসেবে ইরাকে অবস্থিত মার্কিন ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইরান। ওই হামলায় কেউ হতাহত হয়নি বলে প্রথম থেকে দাবি করে এসেছে যুক্তরাষ্ট্র। শেষ পর্যন্ত বৃহস্পতিবার মার্কিন প্রশাসন স্বীকার করেছে, ইরানের হামলায় তাদের ১১ সেনা আহত হয়েছেন।

প্রশ্ন উঠেছে, এতদিন তাহলে সেনা আহতের বিষয়টি কেন গোপন রাখে যুক্তরাষ্ট্র? এই প্রশ্নের ব্যাখ্যা দিয়েছেন মার্কিন রাজনৈতিক বিশ্লেষক টিম অ্যান্ডারসন। সম্প্রতি তার একটি ভিডিও সাক্ষাৎকার প্রকাশ করে ইরানি সংবাদমাধ্যম প্রেসটিভি।

ওই ভিডিও সাক্ষাৎকারে টিম অ্যান্ডারসন বলেন, মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের প্রতিবেদনে আমরা দেখেছি- ইরানের হামলায় মার্কিন ঘাঁটির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এতদিন কোনো হতাহতের খবর না জানালেও যুক্তরাষ্ট্র এবার বলছে- কোনো সেনা নিহত হয়নি। তবে আহত হয়েছেন ১১ জন।

অ্যান্ডারসন আরও বলেন, আমরা সবগুলো বিষয় একসঙ্গে বিবেচনায় নিলে বুঝতে পারি- ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলার নির্ভুলতার কারণে স্তব্ধ হয়ে যায় যুক্তরাষ্ট্র। ইরান মার্কিন ব্যারাকে হামলা চালানোর পরিবর্তে কমান্ড সেন্টারে চালিয়েছে। এতে স্পষ্ট যে- মার্কিন সেনাদের হত্যা তাদের লক্ষ্য ছিল না। তেহরানের উদ্দেশ্য ছিল- যুক্তরাষ্ট্রকে ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলার নির্ভুলতা সম্পর্কে ধারণা দেওয়া।

আরও পড়ুন : মার্কিন সেনাদের জন্য ৫০ কোটি ডলার দিল সৌদি

মার্কিন এই রাজনৈতিক বিশ্লেষক বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ইরানের কোনো ক্ষেপণাস্ত্র ঠেকাতে পারেনি। এমনকি একটিও ঠেকাতে পারেনি তারা। এ কারণে পুরো ঘাঁটি ধ্বংসযজ্ঞে পরিণত হয়। তারপরও হামলায় ক্ষয়ক্ষতি ও হতাহতের খবর গোপন রাখা হয়।

এর কারণ হলো- মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে পরবর্তী আগ্রাসী কোনো সিদ্ধান্ত থেকে বিরত রাখা। এমনকি ট্রাম্প নিজেও ইরানের বিরুদ্ধে আর কোনো সামরিক পদক্ষেপ নেওয়া থেকে বিরত থাকতে চাচ্ছিলেন। ফলে হতাহতের খবর গোপন রাখা হয় এবং ক্ষয়ক্ষতিও কম দেখানো হয়।

ওডি/ডিএইচ

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড