• মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সর্বোচ্চ উষ্ণতম ছিল গত দশক, অব্যাহত থাকার আভাস

  অধিকার ডেস্ক

১৬ জানুয়ারি ২০২০, ১৩:১১
উষ্ণতম
কার্বন নিঃসরণে বাড়ছে তাপমাত্রা; (ছবি- ইন্টারনেট)

সদ্য গত হওয়া দশককে সবচেয়ে উষ্ণতম হিসেবে তালিকাভুক্ত করেছে তিনটি সংস্থা। একই সঙ্গে চলতি বছরেও একই ধারা অব্যাহত থাকার আভাস দিচ্ছেন তারা।

মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা, ন্যাশনাল ওশানিক অ্যান্ড অ্যাটমোস্ফিয়ার অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এনওএএ) ও যুক্তরাজ্যের আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, গত দশকের সবচেয়ে উষ্ণতম বছর ছিল ২০১৬। দ্বিতীয় উষ্ণতম বছর ছিল ২০১৯ সাল।

সংস্থাগুলো জানিয়েছে, গত পাঁচ বছর ছিল ১৭০ বছরের ইতিহাসে সবচেয়ে উষ্ণতম বছর। এ সময়ে প্রতি বছরই ১ ডিগ্রি করে বেড়েছে তাপমাত্রা। বায়ুমণ্ডলের পাশাপাশি সমুদ্রপৃষ্ঠেও তাপমাত্রা বেড়েছে বলে জানিয়েছে সংস্থাগুলো। একই সময়ে সমুদ্রপৃষ্ঠেও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

এ বিষয়ে হেডলি সেন্টারের আবহাওয়াবিদ কলিন মরিস বলেন, ১৯৮০ সালের পর প্রতি দশকেই উষ্ণতা আগের অবস্থানকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে। গবেষকরা এ অবস্থার জন্য দায়ী করছেন মনুষ্যসৃষ্ট কর্মকাণ্ডে কার্বন নিঃসরণকে।

তবে নতুন প্রকাশিত এ তথ্যচিত্রকে বড় কোনো আশ্চর্যজনক বিষয় মনে করছেন না বিশেষজ্ঞরা। কেননা, দশক শেষে এমন চিত্র পাওয়া আভাস আগেই দিয়েছিল আন্তর্জাতিক আবহাওয়া সংস্থা (ডব্লিউএমও)।

আরও পড়ুন- ভয়াল প্লাবনে হিমালয়ের ৫ হাজার হ্রদ ভেসে যাওয়ার আশঙ্কা

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, ১৮৫০ সাল থেকে ১৯০০ সালের তুলনায় ২০১৯ সালে তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেয়েছে গড়ে ১ দশমিক ০৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গত বছর অর্থাৎ ২০১৯ সালের জুন ও জুলাইয়ে ইউরোপে দুটি বড় ধরনের তাপদাহ দেখা দিয়েছে। যার ফলে ২৮ জুন ৪৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার নতুন রেকর্ড গড়েছে ফ্রান্স।

এই রেকর্ডে একই সঙ্গে নাম লিখিয়েছে ইউরোপের দেশ জার্মানি, নেদারল্যান্ডস, বেলজিয়াম, লুক্সেমবার্গ। ৩৮ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় রেকর্ডে স্থান করে নিয়েছে যুক্তরাজ্য। তাপদাহে পুড়েছে অস্ট্রেলিয়াও। যার কারণে সেখানে দাবানলের ঘটনা ঘটেছে। আমাজনও পুড়েছে দাবানলে।

ওডি/এনএম

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড