• বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রীর লঙ্কা সফরে উৎকণ্ঠায় ভারত

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:০৩
গোটাবায়ার, কুরেশি ও মোদী
লঙ্কান প্রেসিডেন্ট গোটাবায়ার সঙ্গে পাক পররাষ্ট্র মন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি সাক্ষাৎ, পাশে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (ছবি : সম্পাদিত)

এশিয়ার দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলঙ্কার সদ্য নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন দেশটিতে সফররত পাক পররাষ্ট্র মন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি। এ সময় তিনি পাকিস্তান সফরের আমন্ত্রণ জানিয়ে প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভির একটি চিঠিও লঙ্কান প্রেসিডেন্টের হাতে তুলে দেন। যদিও পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এই লঙ্কা সফর নিয়ে ভীষণ উদ্বিগ্ন হয়ে উঠেছে প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারত।

পাক পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মহম্মদ ফয়জল এক বিবৃতিতে জানান, মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) কলম্বো শহরে আয়োজিত বৈঠকটিতে তাদের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যসহ বিভিন্ন ইস্যুতে আলোচনা হয়েছে। এ সময় জম্মু-কাশ্মীরে চলমান মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়েও গোটাবায়ার সঙ্গে কুরেশির কথা হয়। তাছাড়া মাদক পাচার ও সন্ত্রাস দমন ইস্যুতে পাকিস্তানের সহায়তা চেয়েছেন সদ্য নির্বাচিত এই লঙ্কান প্রেসিডেন্ট।

এর আগে গত মাসেই শ্রীলঙ্কার নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পর গোটাবায়া তার প্রথম রাষ্ট্রীয় সফরে ভারত যান। যেখানে তার সঙ্গে আলোচনার পর দ্বীপরাষ্ট্রটির উন্নয়ন ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য ৪৫ কোটি ডলার আর্থিক সহায়তা প্রদানের ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। 

বৈঠক শেষে লঙ্কান প্রেসিডেন্ট ইঙ্গিত দিয়েছিলেন, দেশের দক্ষিণাঞ্চলের হাম্বানটোটা নামে যে বন্দরটি ১১০ কোটি ডলারের বিনিময়ে ৯৯ বছরের জন্য চীনের কাছে লিজ দেওয়া হয়েছিল তিনি তা ফিরিয়ে নিতে চান।

আরও পড়ুন :- অবশেষে বিক্রমের সন্ধান দিল নাসা

বিশ্লেষকদের মতে, চীনপন্থি হিসেবে পরিচিত গোটাবায়াকে অনেকটাই সন্দেহের চোখে দেখছে নয়াদিল্লি। এমন প্রেক্ষাপটে পাক পররাষ্ট্র মন্ত্রীর শ্রীলঙ্কা সফরে যে সাউথ ব্লকে উত্তেজনা ছড়াচ্ছে তা বলাই বাহুল্য।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড