• সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বাবরি মসজিদের রায় পুনর্বিবেচনার দাবিতে মামলা করল ভারতীয় মুসলিমরা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২২:২৩
ভারত
বাবরি মসজিদ, ছবি : সংগৃহীত

অযোধ্যার বাবরি মসজিদ মামলার রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন জানিয়ে মামলা দায়ের করেছে ভারতীয় মুসলিমরা। সোমবার এই মামলা দায়েরের বিষয়টি আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়।

ইরানভিত্তিক গণমাধ্যম পার্সটুডে এক প্রতিবেদনে জানায়, বাবরি মসজিদ মামলার রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন জানিয়ে মামলা দায়ের করেছে জমিয়তে উলেমায়ে হিন্দ। সোমবার জমিয়ত প্রধান মওলানা আরশাদ মাদানী এটি জানান।

আরশাদ মাদানী বলেন, দেশের মুসলিমদের সংখ্যাগরিষ্ঠ অংশই ওই রায় পুনর্বিবেচনার পক্ষে মত দিয়েছেন। আবেদনে সুপ্রিম কোর্টের সাম্প্রতিক সিদ্ধান্তকে প্রশ্নবিদ্ধ করে ওই মামলার পুনরায় শুনানির দাবি জানানো হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে সোমবার সন্ধ্যায় পশ্চিমবঙ্গের জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের সভাপতি ও রাজ্যের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরি বলেন, বিচার ব্যবস্থার প্রতি আমাদের আস্থা আছে। আমরা চাচ্ছি এর সুবিচার হোক। আমরা আদালতের রায়ে খুশি নই- এটা খুব পরিষ্কার কথা। বাবরি মসজিদের তথ্য ভিত্তিক কোনো বিচার হয়নি, আবেগের ওপরে রায় হয়েছে বলেও মাওলানা সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী মন্তব্য করেন।

পুনর্বিবেচনার আবেদনে সুপ্রিম কোর্টের সাংবিধানিক বেঞ্চের আদেশ স্থগিতের দাবি জানানো হয়েছে। একইসঙ্গে বলা হয়েছে, সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্রীয় সরকারকে আদেশ দিক যেন মন্দির নির্মাণের জন্য ট্রাস্ট তৈরি না করা হয়। 

জমিয়তের শীর্ষ নেতা আরশাদ মাদানী বলেন, আদালতই আমাদের অধিকার দিয়েছে মামলা করার, সেজন্য মামলা করা হয়েছে। অযোধ্যা মামলায় বিতর্কের মূল বিষয়বস্তু ছিল মন্দির ধ্বংস করে মসজিদ তৈরি হয়েছিল কি না। শীর্ষ আদালত তার পর্যবেক্ষণে বলেছে, মন্দির ধ্বংস করেই যে মসজিদ তৈরি হয়েছিল, এমন কোনো প্রমাণ নেই। সুতরাং মুসলিমদের অধিকার প্রমাণিত। অথচ চূড়ান্ত রায় এর বিপরীতধর্মী। আমরা রায় পুনর্বিবেচনার আর্জি জানিয়েছি কারণ, রায় বোধগম্য  হয়নি।

ওডি/ডিএইচ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড