• বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬  |   ১৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

আজাদ কাশ্মীরের বদলে পাকিস্তানকে টমেটো দিতে চায় ভারতীয় কৃষকরা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২৭ নভেম্বর ২০১৯, ০৯:২৮
ইমরান খান
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান (ছবিসূত্র : দ্য ডন)

পাকিস্তানজুড়ে এখন টমেটোর মূল্য আকাশছোঁয়া। আর এতেই সহমর্মিতার নামে দেশটির তীব্র সমালোচনা করল প্রতিবেশী ভারতের একটি গ্রাম! পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের কাছে বার্তা দিলেন মধ্যপ্রদেশের ঝাবুয়া জেলার কৃষক ইউনিয়ন। 

যেখানে বলা আছে, ‘আপনি আপনার দেশে যেসব কর্মকাণ্ড দেখাচ্ছেন তার জন্য অবশ্যই ক্ষমা চাওয়া উচিত। পাক-অধিকৃত আজাদ কাশ্মীরকে ছেড়ে দেন— তাহলেই এর বদলে আমরা আপনার দেশে পর্যাপ্ত সংখ্যক টমেটো পাঠিয়ে দেব।’

বিশ্লেষকদের মতে, পাকিস্তানের এখন প্রতি কেজি টমেটোর দাম স্থানীয় মুদ্রায় প্রায় ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা। সম্প্রতি ঝাবুয়া জেলার প্যাটেলাবাদের কৃষকেরা মিডিয়ার বরাতে এই খবর পান। মূলত এরপরই তারা ওয়াঘা সীমান্ত দিয়ে পাকিস্তানে টমেটো পাঠানোর বার্তাটি দিলেন।

সূত্রের বরাতে গণমাধ্যম ‘দ্য হিন্দুস্তান টাইমস’ জানায়, গত ২২ নভেম্বর ভারতীয় কৃষক ইউনিয়নের ঝাবুয়া শাখা পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বরাবর একটি চিঠি লিখেছিল। যেখানে বলা হয়, ‘পাকিস্তান আমাদের দেশের নির্দোষ বেসামরিক নাগরিকদের ওপর হামলা চালাচ্ছে। তারা এই দেশে সন্ত্রাসবাদ ছড়িয়েছে, এমনকি মুম্বাই হামলার মতো ঘটনাতেও তারা জড়িত। শুধু তাই নয়, পুলওয়ামার জঙ্গি হামলাতেও পাকিস্তানের হাত রয়েছে।’

চিঠিতে আরও বলা হয়, ‘পাকিস্তানের একের পর এক সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপের প্রতিবাদে ভারতীয় কৃষক ইউনিয়ন দেশটিতে টমেটো রপ্তানি বন্ধ করেছিল। আপনি (ইমরান খান) আপনাদের কৃতকর্মের জন্য আগে ক্ষমা চান। পাক অধিকৃত কাশ্মীরকে জোরপূর্বক যেভাবে দখল করে রেখেছেন, সেখান থেকে আগে সরে আসুন। মূলত এরপরেই ভারতীয় কৃষক ইউনিয়ন পাকিস্তানে টমেটো রপ্তানি শুরু করবে।’

আরও পড়ুন :- মিয়ানমারের কাছে রাসায়নিক অস্ত্র রয়েছে : দাবি যুক্তরাষ্ট্রের

কৃষক ইউনিয়নের এই চিঠিতে মুম্বাই হামলার মূল হোতা দাউদ ইব্রাহিম ও অন্যান্য সন্ত্রাসবাদীদের অবিলম্বে ভারত সরকারের হাতে তুলে দেওয়ার দাবিও জানানো হয়।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড