• সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ব্রিটিশ সেনাদের বিরুদ্ধে ইরাক-আফগানিস্তানে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৭ নভেম্বর ২০১৯, ২০:১৩
যুক্তরাজ্য
ব্রিটিশ সেনাবাহিনী (ছবি : বিবিসি)

আফগানিস্তান ও ইরাকে যুদ্ধের সময় যুদ্ধাপরাধের সঙ্গে জড়িত ছিল ব্রিটিশ সরকার ও দেশটির সেনাবাহিনী। এমন চাঞ্চল্যকর তথ্যই উঠে এসেছে ‘বিবিসি প্যানোরামা’ ও ‘সানডে টাইমসের’ এক প্রতিবেদনে।

রবিবার (১৭ নভেম্বর) প্রকাশিত ওই প্রতিবেদন অনুযায়ী, ‘বিবিসি প্যানোরামা’ এবং ‘সানডে টাইমস’ ১১ জন ব্রিটিশ গোয়েন্দার সঙ্গে কথা বলেছেন। যেখানে ব্রিটিশ সরকার ও দেশটির সেনাবাহিনী দ্বারা আফগানিস্তান ও ইরাকের বেসামরিক নাগরিকদের হত্যার প্রমাণ পেয়েছে তারা।

ইরাকে যুদ্ধাপরাধের তদন্ত দল ‘ইরাক হিস্ট্ররিক এলিগেশন টিম’ (আইএইচএটি) ও আফগানিস্তানের তদন্ত দল ‘অপারেশন নর্থমুর’ থেকেই পাওয়া গেছে এসব অভিযোগের প্রমাণ। তারা ইরাক ও আফগানিস্তানে ব্রিটিশ সেনাদের যুদ্ধাপরাধের বিষয়টি তদন্ত করেছে।

আইএইচএটির প্রমাণাদি দিয়ে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে ব্রিটিশ সেনাদের ওপর আইনজীবী ফিল শিনার প্রায় এক হাজারটি মামলা দায়ের করেন। এরপরই আইএইচএটিকে বন্ধ করে দেয় ব্রিটিশ সরকার। 

এ বিষয়ে আইএইচএটি এবং অপারেশন নর্থমুরের প্রাক্তন গোয়েন্দাদের অভিমত, আইনজীবী ফিল শিনারের কার্যক্রমের অজুহাত দেখিয়ে তাদের তদন্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়। এর কারণ সেনা সদস্যদের তদন্ত ও বিচার করার কোনো ইচ্ছা ব্রিটিশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ছিল না। 

গোয়েন্দারা আরও বলেন, ব্রিটিশ সেনারা যেসব কাজ করেছে সেগুলোকে ঘৃণা না করে উপায় নেই। তাদের অত্যাচারে অনেক পরিবার তাদের সদস্য হারিয়েছে। তারা ন্যায় বিচার পাচ্ছে না। কিন্তু আমরা মনে করি, অবশ্যই ব্রিটিশ সেনাদের এই অপরাধের বিচার হওয়া উচিত।

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছে ব্রিটেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। তাদের দাবি, এসব অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও বানোয়াট।

ওডি/এসসা

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪, ০১৯০৭৪৮৪৮০০ 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড