• বুধবার, ২২ জানুয়ারি ২০২০, ৯ মাঘ ১৪২৭  |   ১৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ইরানের বিরুদ্ধে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের অভিযোগ করল জাতিসংঘ

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১২ নভেম্বর ২০১৯, ১৩:২৮
হাসান রুহানি
ইরানের ইউরোনিয়াম মজুদকেন্দ্র পরিদর্শন করছেন প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি (ছবিসূত্র : এমএসএন)

মধ্যপ্রাচ্যের তেল সমৃদ্ধ দেশ ইরানের বিরুদ্ধে এবার নিজেদের ভূগর্ভস্থ পরমাণু স্থাপনা ফোরদুতে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ কর্মসূচি চালুর অভিযোগ তুলেছে জাতিসংঘ। সোমবার (১১ নভেম্বর) সংস্থাটির আওতাধীন আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংগঠনের (আইএইএ) প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে অভিযোগটি তোলা হয়। খবর ‘আনাদোলু এজেন্সির’।

আইএইএ তাদের প্রতিবেদনে বলেছে, গত ৯ নভেম্বর থেকে ইরান নিজেদের ভূগর্ভস্থ পরমাণু স্থাপনা ফোরদুতে পুনরায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ শুরু করেছে। যে কারণে তাদের সমৃদ্ধ ইউরেনিয়ামের মজুদ বেড়েই চলেছে। তেহরানের এই কর্মসূচি পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে স্বাক্ষরিত পরমাণু চুক্তি সরাসরি লঙ্ঘন করছে।

বিশ্লেষকদের মতে, আইএইএ থেকে করা অভিযোগটির পর ইরানের ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ সংক্রান্ত দাবির সত্যতা পাওয়া গেল। সম্প্রতি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি জানিয়েছিলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র পারমাণবিক চুক্তি থেকে সরে যাওয়ায় তারা এক রকম বাধ্য হয়েই টানা চতুর্থ দফায় সমঝোতাটি ভেঙেছে। তাই এই চুক্তির পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন না হলে ধীরে ধীরে ওই সমঝোতাকে প্রত্যাহার করা হবে।

জাতিসংঘের আওতাধীন আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থার মুখপাত্র মোগেরিনি বলেছেন, ‘ইরান তাদের ফোরদু স্থাপনায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করে যাচ্ছে। যা দেখে মনে হচ্ছে দেশটি ধাপে ধাপে পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যেতে চাইছে, যা আমাদের কাছে গভীর উদ্বেগের একটি বিষয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘ইউরোপ বিষয়টি নিয়ে আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা (আইএইএ) থেকে পাঠানো প্রতিবেদনের অপেক্ষায় আছে। যা হাতে পাওয়ার পরই পরমাণু সমঝোতায় স্বাক্ষরকারী ইউরোপীয় তিন দেশ ব্রিটেন, ফ্রান্স এবং জার্মানি তাদের প্রতিক্রিয়া জানাবে।’

এর আগে ২০১৫ সালে ইরানের পরমাণু কর্মসূচি কমানোর জন্য তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার নেতৃত্বে বিশ্বের ক্ষমতাধর ছয় দেশের সঙ্গে একটি চুক্তি হয়েছিল। যেখানে শর্ত ছিল ইরান তার পরমাণু কর্মসূচি কমিয়ে আনবে, যার বিনিময়ে তাদের ওপর আরোপিত সকল অবরোধ ক্রমশ তুলে নেওয়া হবে। এতে চুক্তি স্বাক্ষরকারী দেশগুলো হলো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, রাশিয়া, চীন ও জার্মানি।

আরও পড়ুন :- মোরালেসের পদত্যাগে ভেনেজুয়েলাকে সতর্কবার্তা দিলেন ট্রাম্প

যদিও গত বছরের ৮ মে বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে সরিয়ে নিয়ে একে একটি অকার্যকর চুক্তি বলে মন্তব্য করেন। একই সঙ্গে তিনি তেহরানের তেল বিক্রিতে অতিরিক্ত নিষেধাজ্ঞাও আরোপ করেন; যা এখনো অব্যাহত আছে।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড