• শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

আইসিডিডিআর,বিতে ১৫ দিনে ১৮ হাজারের বেশি ডায়রিয়া রোগী

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৬ এপ্রিল ২০২২, ১০:২১
আইসিডিডিআর,বিতে ১৫ দিনে ১৮ হাজারের বেশি ডায়রিয়া রোগী
ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীদের ওয়ার্ড (ছবি : সংগৃহীত)

রাজধানীতে বেশ কয়েকটি এলাকায় ডায়রিয়ার প্রকোপ বেড়েই চলছে । আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশের (আইসিডিডিআরবি) মহাখালী হাসপাতাল এবং রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত ঢাকা শিশু হাসপাতালে এ সংক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছেন।

চিকিৎসকরা জানান, ডায়রিয়াজনিত সমস্যা নিয়ে আসা রোগীদের বেশিরভাগই মিরপুর, শ্যামলী, আগারগাঁও, গাবতলি, মোহাম্মদপুর এলাকার। এসব রোগী সরাসরি কলের পানি, ভ্যাপসা গরম ও খাদ্যে অসচেতনতার কারণে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন।

শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) হাসপাতালগুলোতে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মার্চ থেকে শুরু হওয়া ডায়রিয়া রোগের প্রাদুর্ভাব গত কয়েক দিনে কিছুটা কমে আসায় এ হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা কমে আসছে। তবে এ সংখ্যা খুব বেশি নয়; প্রতিদিন কমছে ৫০ জনের মতো।

ঢাকায় উদরাময় গবেষণার আন্তর্জাতিক এ প্রতিষ্ঠানে বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) রাত ১২টা থেকে শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) বিকাল ৩টা পর্যন্ত ১৫ ঘণ্টায় ৬১৯ জন ডায়রিয়া রোগী ভর্তি হয়েছেন। আর গত ১ এপ্রিল থেকে শুক্রবার (১৪ এপ্রিল) বিকাল ৩টা পর্যন্ত ১৮ হাজার ৬২ জন এ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন।

আইসিডিডিআর,বির গণমাধ্যম ব্যবস্থাপক তারিফুল ইসলাম খান সংবাদমাধ্যমকে জানান, গত বৃহস্পতিবার ১ হাজার ৫৮ জন ডায়রিয়া রোগী এ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। আর বুধবার ভর্তি হয়েছিলেন ১ হাজার ২০ জন।

ঢাকা ও আশপাশের এলাকায় মার্চের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে ডায়রিয়ার প্রাদুর্ভাব বাড়তে শুরু করে। প্রতিদিন হাজারের বেশি রোগী ভর্তি হয়েছেন ঢাকার আইসিডিডিআর,বি-তে।

হাসপাতালের প্রধান ডা. বাহারুল আলম সংবাদমাধ্যমকে বলেন, গত ৯ এপ্রিল থেকে রোগীর সংখ্যা কমছে। তীব্র পানিশূন্যতা নিয়ে আসা রোগীর সংখ্যা কমে আসছে। প্রতিদিনই কিছু কিছু রোগী কমছে।

অপরিশুদ্ধ হাত ও খাবার মুখে গেলেই ডায়রিয়া হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায় জানিয়ে তিনি বলেন, বিশুদ্ধ পানি পান করতে হবে। খাবার খাওয়ার ক্ষেত্রেও সতর্ক হতে হবে। বাইরের খোলা খাবার খাওয়া যাবে না। আর হাত মুখে দেওয়ার আগে অবশ্যই ধুয়ে জীবাণুমুক্ত করে নিতে হবে।

আইসিডিডিআর,বির তথ্যমতে, গত মার্চ মাসে এ হাসপাতালে ৩০ হাজার ৩৭২ জন রোগী ডায়রিয়া নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন। মার্চের মাঝামাঝি থেকেই রোগীর সংখ্যা দ্রুত বাড়তে থাকে।

এর মধ্যে ৪ এপ্রিল রেকর্ডসংখ্যক ১ হাজার ৩৮৩ জন রোগী ভর্তি হয়েছিলেন। এরপর থেকে প্রতিদিনই ১ হাজারের বেশি রোগী মহাখালীর বিশেষায়িত এ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

এর বাইরে রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতাল এবং শিশু হাসপাতালেও ডায়রিয়া নিয়ে আসা প্রাপ্তবয়স্ক ও শিশুরা চিকিৎসা নিয়েছে। তাদের মধ্যে অনেককেই হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছে।

এবার গরমে ঢাকার পাশাপাশি অন্যান্য জেলায়ও এ রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা গেছে। অনেক জেলা হাসপাতাল রোগীর চাপ সামলাতে পারছে না বলে খবর আসছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, মার্চ মাসে দেশে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন ১ লাখ ৭০ হাজার ২৩৭ জন। এর মধ্যে শুধু রাজধানীতেই ৩৬ হাজার ৯১২ জন হাসপাতালে গেছেন।

ওডি/ইমা

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড