• বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩৪ °সে
  • বেটা ভার্সন

বডি শেপিং সম্পর্কে কতটা জানেন আপনি?

  স্বাস্থ্য ডেস্ক

১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:২৬
বডি শেপিং
ছবি : প্রতীকী

আমরা সবাই নিজেকে আকর্ষণীয় দেখাতে চাই। তার জন্য কত কী না করা হয়। টাকা খরচ করে প্রসাধনী কিনি, মুখে মাখি। কিন্তু মেকআপ মুছে ফেলার পর পুনরায় সেই মলিন চেহারা, থলথলে চিবুক বেরিয়ে পড়ে। যারা একটু সচেতন তারা ব্যায়াম করে দেহকে একটি শেইপে আনার চেষ্টা করে। কিন্তু কিছুতেই মোটা হাত, ভারী নিতম্ব অথবা বুকের গঠনে যেন তেমন পরিবর্তন আসে না। একবারও কি ভেবে দেখেছেন কেন আপনি আপনার আকাঙ্ক্ষিত ফিগার শেইপে যেতে পারছেন না?

প্রত্যেকের দেহের গঠন ভিন্ন। কারও মুখটা ভরাট, শরীর শুকনো অথবা পুরো দেহ ভারী কিন্তু মুখে যেন মাংস নেই। কারও ক্ষেত্রে দেখা যায়, শুধুমাত্র হাত মোটা দেখে তাদের দেখতে মোটা লাগে। কারও আবার দেহের ওপরের অংশ ভারী অথবা নিচের অংশ। এ কারণে বডি শেইপিংয়ের জন্য দেহের গঠন জানা ভীষণ জরুরি।

বডি শেপিং নিয়ে কিছু প্রশ্ন সবার মনে উঁকি দেয়। চলুন সেগুলো সম্পর্কে আলোচনা করা যাক- 

১। নারী-পুরুষ সবাই কি একই ব্যায়াম করবে?

উ: নারী ও পুরুষের হরমোনের পাথর্ক্য রয়েছে। এ কারণে তাদের বডি শেইপিংয়ের জন্য আলাদা আলাদা ব্যায়াম করতে হয়।

২। ওজন কমালে কি বডি শেইপে আসবে?

উ: ওজন কমানো আর বডি শেইপিং দুটো আলাদা ব্যাপার। ব্যায়াম করলে মাসল টোনড হয়, এ কারণে ক্যালরি বেশি খরচ হয় বলে পরোক্ষভাবে ওজন কমে। বডি শেইপিংয়ের জন্য প্রত্যেক মাংসপেশি এবং দেহের বিভিন্ন অঙ্গের জন্য আলাদা আলাদা ব্যায়াম প্রয়োজন।

৩। তারুণ্য ধরে রাখতে কি মুখের আলাদা ব্যায়াম করতে হবে?

উ: হ্যাঁ, এজন্য মুখের আলাদা ব্যায়াম আছে। এসব ব্যায়াম মুখের স্কিন টাইট করে, ঝুলে পড়া চামড়া ঠিক করে। এছাড়াও চোখের দৃষ্টিশক্তি ধরে রাখতে কিছু ব্যায়াম রয়েছে।

এমনকি বয়স হলে অনেকের হাঁচি-কাশির সাথে প্রস্রাব বের হয়ে যায়। এ সমস্যার সমাধানও সুনির্দিষ্ট ব্যায়ামের মাধ্যমে করা যায়।

৪। কীভাবে আকর্ষণীয় ফিগার পাব?

উ: ফিগার শেইপে আনার জন্য মাসল টোনড হওয়া ভীষণ জরুরি। প্রত্যেকের দেহের গঠন অনুযায়ী ব্যায়াম করলে দ্রুত আকর্ষণীয় ফিগার পাওয়া যাবে।

ব্যায়াম করার নিয়ম- 

১। ওয়ার্ম আপ : ব্যায়াম শুরুর আগে ৫ থেকে ১০ মিনিট ওয়ার্ম আপ করে নিতে হবে। নয়ত মাংসপেশিতে টান লেগে ইনজুরি হতে পারে।

২। ব্যায়াম : প্রতিদিন একই ব্যায়াম না করে দেহের বিভিন্ন অঙ্গ ভাগ করে এক একদিন এক এক অঙ্গের জন্য ব্যায়াম করলে বডি দ্রুত শেইপে আসে।

৩। স্ট্রেচিং : ব্যায়াম শেষে স্ট্রেচিং করতে হবে।

৪। বিশ্রাম : সপ্তাহে ১/২ দিন ব্যায়াম না করে বিশ্রাম নিতে হবে।

৫। প্রচুর পানি পান করতে হবে।

তারুণ্য ধরে রাখতে আমরা সবাই চাই। আকর্ষণীয় পোশাকটি আমাদের দেহে মানিয়ে যাক, এটাও আমরা চাই। তাই জেনে শুনে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে ব্যায়াম শুরু করুন। সুস্থ থাকুন, আনন্দে বাঁচুন।

লেখক- মাহমুদা আক্তার রোজী, ফিজিওথেরাপিস্ট। 

ওডি/এনএম 

স্বাস্থ্য-ভোগান্তি, নতুন পরিচিত অসুস্থতার কথা জানাতে অথবা চিকিৎসকের কাছ থেকে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত পরামর্শ পেতেই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব এবং সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্য সমস্যার পরামর্শ দেবার প্রচেষ্টা থাকবে আমাদের।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড