• মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন

কেন হয় বিষফোঁড়া?

  স্বাস্থ্য ডেস্ক

০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৫:১৪
বিষফোড়া
ছবি : প্রতীকী

আমাদের দেহের বিভিন্ন অংশে ফুসকুড়ি কিংবা ফোসকা হয়ে থাকে। চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় এদের বিষফোঁড়া বলা হয়। সাধারণত মুখ, বগল, পিঠ, ঘাড়, গলা, নিতম্ব ইত্যাদি অঙ্গে বিষফোঁড়া হতে পারে। সাধারণত, এগুলো সাদা ও হলদেটে বর্ণের হয়ে থাকে। ফুসকুড়ি এক স্থান থেকে অন্য স্থানে খুব জলদি ছড়িয়ে পড়তে পারে। 

সাধারণত এই ফোস্কাগুলো বেশ ব্যথাদায়ক হয়ে থাকে এবং এদের ভেতর পুঁজ থাকে। কয়েকদিন পরেই এদের আকার বৃদ্ধি পায়। কিন্তু কেন হয় বিষফোঁড়া? এর কারণ কী? 

দেহে ফোস্কা বা বিষফোড়া হয়ে থাকে ব্যাকটেরিয়ার কারণে। এছাড়াও যেসব কারণে ফোস্কা হতে পারে তা হলো- 

● ক্ষতিগ্রস্ত ফলিসেল
● দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা
● ঘাম প্রন্থিতে সংক্রামণ
● অপরিষ্কার থাকা
● দেহে পুষ্টির অভাব
● ক্রনিক রোগ।

যেসব ব্যক্তির ডায়াবেটিস রয়েছে তাদের ফোস্কা হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। 

বেশিরভাগ সময়েই ঘরোয়া পদ্ধতিতে ফোস্কা সমস্যার সমাধান করা হয়। তবে দেহের ভেতরের দিকে যে ফোস্কা হয়ে থাকে তা খুবঅই যন্ত্রণাদায়ক হয়ে থাকে। দুই সপ্তাহের মধ্যেও যদি ফোস্কা ভালো না হয় এবং এর কারণে যদি জ্বর আসে তবে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত। 

নিজের ইচ্ছে মতো পিন বা কাঠির দিয়ে ফোস্কা গালতে যাবেন না। এতে ক্ষত সৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। 

ওডি/এনএম 

স্বাস্থ্য-ভোগান্তি, নতুন পরিচিত অসুস্থতার কথা জানাতে অথবা চিকিৎসকের কাছ থেকে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত পরামর্শ পেতেই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব এবং সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্য সমস্যার পরামর্শ দেবার প্রচেষ্টা থাকবে আমাদের।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড