• বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

ঘুমে কথা বলা সমস্যা থেকে মুক্তি মিলবে যেভাবে

  স্বাস্থ্য ডেস্ক

২৩ আগস্ট ২০১৯, ১৪:৫৬
ঘুম
ছবি : সংগৃহীত

স্বাভাবিকভাবেই ঘুমিয়ে গেলে আমাদের হুঁশ থাকে না। তবে অনেককেই ঘুমের মধ্যে হাসতে, বিড়বিড় করে কথা বলতে ও চিৎকার করতে দেখা যায়। ঘুমের মধ্যে অসচেতনভাবে কথা বলাকে স্লিপিং টকিং বলে। তবে এর মেয়াদকাল ৩০ থেকে ৪০ সেকেন্ডের বেশি হয় না। গবেষকদের মতে, শিশু ও পুরুষরাই এই সমস্যায় বেশি ভোগেন।  

গবেষণা অনুযায়ী দেখা যায়, ঘুমের মধ্যে কথার বেশির ভাগই অতীত ঘটনার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত থাকে। ঘুমের মধ্যে কথা বলার কিছু উল্লেখযোগ্য কারণ হচ্ছে- 

•    মানসিক চাপ 
•    বিষণ্ণতা 
•    পর্যাপ্ত ঘুম না হওয়া 
•    কিছু ঔষধের প্রভাব 
•    মানসিক সমস্যা 
•    মাদক গ্রহণ 
•    অসুস্থতা ও দুর্বলতা 
•    স্লিপ অ্যাপনিয়া 

প্রতিদিনই ঘুমের মধ্যে আপনি অনেক কথা বলছেন। মাঝে মাঝে জোরে চিৎকারও দিয়ে দিচ্ছেন। এতে করে আপনার আশেপাশে থাকা মানুষজন খুব বিরক্ত। জেনে নিন তাদেরকে বিরক্তি থেকে মুক্তি দিতে যা যা করবেন- 

• প্রতিদিন নির্দিষ্ট সময় ঘুমানো এবং ঘুম থেকে ওঠার অভ্যাস করতে হবে। 

• রাতে ঘুমানোর ৩ ঘণ্টা আগে খাবার খান ও হালকা খাবার গ্রহণ করুন, যা শরীর ও ঘুমের জন্য খুব ভালো।  

• সন্ধ্যার পর চা-কফি পান করা থেকে বিরত থাকুন। 

• নিয়মিত ৭-৮ ঘণ্টা ঘুমাতে হবে। 

• মানসিক চাপ কমাতে হবে। এর জন্য নিয়মিত ব্যায়াম করুন, প্রিয় মানুষদের সঙ্গে সময় কাটান ও ঘুরতে বের হন।  

• ঘুমের সময় স্মার্ট ফোনটি দূরে রাখুন। খুব ভালো হয় যদি ঘুমুতে যাওয়ার ১ ঘণ্টা আগে থেকে স্মার্ট ফোনের ব্যবহার বন্ধ করেন। 

এ রুটিনে চললে ঘুমের মধ্যে কথা বলার অভ্যাসটি বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এরপরও যদি আপনি এই সমস্যায় ভোগেন, তবে অবশ্যই একজন চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।  
 

স্বাস্থ্য-ভোগান্তি, নতুন পরিচিত অসুস্থতার কথা জানাতে অথবা চিকিৎসকের কাছ থেকে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত পরামর্শ পেতেই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব এবং সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্য সমস্যার পরামর্শ দেবার প্রচেষ্টা থাকবে আমাদের।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড