• বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ৩০ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বার বার ভাত গরমে ডাকছেন নিজের বিপদ!

  লাইফস্টাইল ডেস্ক

১৮ আগস্ট ২০১৯, ০৮:৫১
ভাত
ছবি : সংগৃহীত

প্রয়োজনের চেয়ে খানিকটা বেশিই ভাত রান্না করা হয় বেশিরভাগ বাড়িতে। খাওয়া শেষে বাড়তি ভাতটুকু গৃহিণীরা রেখে দেন ফ্রিজে। খাওয়ার আগে বের করে গরম করে নেন। তারপর আবার অবশিষ্ট ভাত রাখেন ফ্রিজে। 

এভাবে বার বার ফ্রিজ থেকে ভাত বের করে গরম করে খাওয়া কি স্বাস্থ্যসম্মত? পুষ্টিবিদরা জবাবে বলছেন, না। এভাবে বার বার গরম করে খাওয়ার ফলে হতে পারে শরীরের ক্ষতি। এভাবে ভাত খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য বেশ ঝুঁকিপূর্ণ। 

তাদের মতে, ভাত কখনোই বার বার গরম করে খাওয়া উচিত নয়। ‘ব্যাসিলাস সেরেয়াস’ নামক এক ধরনের ব্যাকটেরিয়াতে থাকা বিষাক্ত টক্সিন চাল সেদ্ধ হওয়ার পরও ভাতে জীবিত থাকে। ভাত যখন বার বার গরম করা হয় তখন এই ব্যাকটেরিয়া সক্রিয় হয়ে ওঠে। 

কেবল ভাত নয় একই ব্যাপার ঘটে ফ্রাইড রাইস, বিরিয়ানি কিংবা পোলাওর ক্ষেত্রেও। এমনকি বাইরের রেস্টুরেন্ট থেকে আনা খাবার বাড়িতে পুনরায় গরম করে খেলেও এ ব্যাকটেরিয়াতে থাকা টক্সিন সক্রিয় হয়। যার ফলে হতে পারে ডায়রিয়া, বমি, আমাশয়সহ নানা ধরনের স্বাস্থ্য জটিলতা। আর তাই সবসসময় টাটকা খাবার গ্রহণে পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। 

এর পাশাপাশি রান্না করা যেকোনো খাবার সংরক্ষণ করতে হবে নির্দিষ্ট তাপমাত্রায়। কোনো খাবার পুনরায় গরম করলেও তা দ্রুত ঠান্ডা করার ব্যবস্থা করতে হবে। এতে ব্যাকটেরিয়া সক্রিয় হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে। 

চিকিৎসকেরা জানাচ্ছেন, সবসময় টাটকা খাবার খাওয়া উচিত। তাও যদি একান্তই গরমের প্রয়োজন পড়ে তবে সর্বোচ্চ একবার ভাত গরম করতে পারেন। এর বেশি গরম করলে, ভাতের পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে তা শরীরের ওপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে।  

কীভাবে গরম করবেন? বাসি ভাত ফ্রিজ থেকে বের করার সঙ্গে সঙ্গেই গরম করে ফেলুন। এরপর সেই ভাতের বাষ্প উঠছে এমন অবস্থাতেই খেয়ে ফেলুন। এর পাশাপাশি ভাত গরম করার সময় ক্রমাগত নাড়তে থাকুন যেন তাপ সর্বত্র সমানভাবে পৌঁছায়। 

ভাত পুনরায় গরম করার পর তা ডিশে ঢেলে ফেলুন এবং ছড়িয়ে দিন। এতে ভাত দ্রুত ঠান্ডা হয়ে যাবে এবং ব্যাকটেরিয়া সক্রিয় হওয়ার আশঙ্কা কম থাকবে। 

ওডি/এনএম 

স্বাস্থ্য-ভোগান্তি, নতুন পরিচিত অসুস্থতার কথা জানাতে অথবা চিকিৎসকের কাছ থেকে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত পরামর্শ পেতেই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব এবং সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্য সমস্যার পরামর্শ দেবার প্রচেষ্টা থাকবে আমাদের।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড